অনেক শিল্পী অভিনয়ের চেয়ে নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত: ফেরদৌস

প্রকাশ: ১০ নভেম্বর ২০১৯      

বিনোদন প্রতিবেদক

ফেরদৌস। তারকা অভিনেতা। 'পুত্র' ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য ২০১৮ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন তিনি। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তিনি-

২০১৮ সালের সেরা অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন। সমকালের পক্ষ থেকে আপনাকে শুভেচ্ছা। কেমন লাগছে?

বেশ ভালো। যে কোনো প্রাপ্তিই আনন্দের। রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি কাজের আনন্দ বাড়িয়ে দেয়। পঞ্চমবারের মতো পুরস্কার পেতে যাচ্ছি, তাই আনন্দ আরও বেশি। এ প্রাপ্তির অনুভূতি অনন্য, যা বলে বোঝানো যাবে না। 'পুত্র' ছবির নির্মাতা ও কলাকুশলীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আর জুরি বোর্ডের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা তো থাকছেই। তারা আমাকে সেরা অভিনেতা হিসেবে যোগ্য মনে করেছেন।

'পুত্র' ছবির কোনো দৃশ্যের কথা মনে পড়ে, যাতে চ্যালেঞ্জ নিতে হয়েছে?

এক ধরনের দায়বদ্ধতা থেকেই সাইফুল ইসলাম মান্নুর এ ছবিতে অভিনয়ে আগ্রহী হয়েছিলাম। এতে অটিজমে আক্রান্ত এক বাবার চরিত্রে আমাকে দেখা গেছে। বাংলাদেশের গতানুগতিক ছবির চেয়ে এটি ভিন্ন পটভূমির ছিল। এই মুহূর্তে বিশেষ কোনো দৃশ্যের কথা বলতে পারব না। তবে মোটা দাগে যদি বলি, তাহলে বলব চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে পুরো ছবিতে আমাকে বেশ চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করতে হয়েছে।

চলচ্চিত্র শিল্পের বর্তমান অবস্থাকে আপনি কীভাবে দেখছেন?

চলচ্চিত্রের অবস্থা বেশি ভালো নয়। ছবি কমে যাচ্ছে। অনেক শিল্পী অভিনয়ের চেয়ে নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত। চলচ্চিত্রের অবস্থা উন্নত করতে হলে ব্যক্তিস্বার্থের কথা না ভেবে চলচ্চিত্রের জন্য কাজ করতে হবে। আমি আশাবাদী মানুষ। আমার মনে হয়, চলচ্চিত্র একদিন ঘুরে দাঁড়াবে। সেদিন বেশি দূরে নয়। বাংলাদেশে সব শিল্পকলা একাডেমিতে একটি সিনেপ্লেক্স তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এর কার্যক্রম অনেকটা এগিয়েছে। এটা হলে চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরবে বলে মনে করছি।

এ সময়ে আর কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

সম্প্রতি দুটি বিজ্ঞাপনের শুটিং করেছি। শিগগিরই এগুলো প্রচারে আসবে। রিয়েল এস্টেট কোম্পানির বিজ্ঞাপন ও কোমল পানীয় পণ্যের বিজ্ঞাপনটির নির্দেশনা দিয়েছেন যথাক্রমে সনক মিত্র ও রিপন নাগ। নতুন একটি ছবিতেও অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। নাম চূড়ান্ত না হওয়া ছবিটি নির্মাণ করবেন এখলাস আরিফিন। পাশাপাশি 'গাঙচিল', 'জ্যাম', 'বিউটি সার্কাস', 'কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র', 'যদি একটু সময় পেতাম' ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত। এগুলোর মধ্যে ডাবিং পর্যায়ে রয়েছে কিছু ছবি। আর 'চট্টলা এক্সপ্রেস'-এর কাজ শিগগিরই শুরু হবে।