বিষয়টি নিয়ে অনেকেই জল ঘোলা করছেন: সেলিম

প্রকাশ: ১৫ মে ২০২০     আপডেট: ১৫ মে ২০২০   

বিনোদন প্রতিবেদক

শহীদুজ্জামান সেলিম

শহীদুজ্জামান সেলিম

করোনা ভাইরাসের কারণে সকল ধরনের শুটিং বন্ধ রাখা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে নিয়ম না মেনে শুটিংয়ে অংশ নেয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন শিল্পী সংঘের সভাপতি শহীদুজ্জামান সেলিম। 

সম্প্রতি একটি সুপারশপের ওভিসিতে (অনলাইন ভিডিও কমার্শিয়াল) অভিনয় করেন এ অভিনেতা। যেটি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরছে। এটির শুটিংয়ে অংশ নেয়ার দরুনই তার বিরুদ্ধে নিয়ম না মেনে শুটিং করায় বিভিন্ন সংগঠনের নেতা–কর্মীরা তাঁর বিরুদ্ধে নিয়মভঙ্গের অভিযোগ তোলেন।

তবে বিষয়টিকে  সামনে এনে অনেকে জল ঘোলা করার চেষ্টা করছেন বলে মন্তব্য করলেন শহীদুজ্জামান সেলিম। 

এর  আগে সংগঠনগুলোর  নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১১ মে পুবাইলে একটি শুটিংবাড়িতে নাটক নির্মাণকাজ শুরু করেন নির্মাতা আদিবাসী মিজান। অভিনেতা ছিলেন জাহিদ হাসান। তারপর থেকেই এই অভিনেতা এবং নির্মাতা নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শুটিং করে তোপের মুখে পড়েন। মিজানা জানান, নেপালে ধারণ করা নাটকটির সামান্য কিছু শুটিং বাকি ছিলো। সেটা করতে গিয়েই সমালোনার মুখে পড়তে হয়েছে।  অথচ একদিন শুটিং করতে পারলেই শেষ হয়ে যেতো । প্রচার হতে ঈদে। অভিনয় শিল্পী সংঘের নিষেধজ্ঞার কারণে শুটিং করা হয়নি। 

ওই ঘটনার সঙ্গে এই শহীদুজ্জামান সেলিম না মেলানোর কথা জানিয়ে বলেন, ‘এখন জাহিদ হাসানের একটি শুটিংয়ের সঙ্গে আমার ফেসবুকের ভিডিওটা নিয়ে অনেকেই জল ঘোলা করার চেষ্টা করছেন। এই নিয়েআমাকে অনেকেই লজ্জায় এবং বিব্রত অবস্থার মধ্যে ফেলছেন। আমাদের বাসার পাশেই মেহেদী মার্ট নামে একটি দোকান আছে। এক ছাদের নিচে সেখানে সবকিছু পাওয়া যায়। সেখান থেকে আমরা নিয়মিত বাজারসদাই করি। গত ১১ তারিখ রাতে বাজার করতে গেলে সেটার মালিক আমাকে অনুরোধ করে বলেন, সেলিম ভাই, আমাদের ফেসবুক পেজের জন্য আপনি একটু কথা বলে দেন। তখন আমি জিজ্ঞাসা করি কী কথা ভাই? তিনি বলেন, আপনি যে সচেতনভাবে নিরাপদে বাজার করতে ঢুকলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে। মূলত নিরাপদ থেকেই এখানে বাজার করতে পারলেন, সেটাই একটু বলবেন। তখন আমি বলেছি এটা তো ঠিক না, শুটিংয়ের মধ্যে পড়ে। তখন তাঁরা বলেন এটা সচেতনতামূলক ভিডিও ফেসবুকের জন্য। একজন মালিকের কথা তো আর ফেলা যায় না। যেভাবে বাজার করতে গিয়েছিলাম, সেই অবস্থায়ই সচেতনতার কথা বলি।’

শিল্পী সংঘঠনের এ নেতা আরও বলেন,  কাজটির জন্য এমন না যে আমি টাকা নিয়েছি বা আগে থেকে শুটিংয়ের প্ল্যান ছিল। বরং ওই সময়ে মালিকের কাছে আমি সংগঠনের ফান্ডের জন্য অনুদান চাই। তিনি রাজি হন। সেটা নিয়ে শনিবার তাঁর সঙ্গে আলোচনা করার কথা। তা ছাড়া তখন মালিককে মেহেদী মার্ট এবং সারা বেলায় কেনাকাটায় আমাদের শিল্পীদের জন্য ৫ ভাগ ছাড়ের কথা বলে রাজি করাই।’

ওভিসিতে আরও অভিনয় করেন  চিত্রনায়ক নিরব, আমান রেজা, চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা, ফখরুল বাশার মাসুম প্রমুখ। এটি নির্মাণ করেছেন  সাখাওয়াত মানিক।