উৎপাদনশীলতা উন্নয়নে একটি সর্বজনীন কৌশল হচ্ছে কাইজেন। কাইজেন শব্দটি দুটি জাপানি শব্দ কাই বা পরিবর্তন এবং জেন বা ভালো এর সংমিশ্রণ। অর্থ 'ভালোর জন্য পরিবর্তন'। এটি এমন একটি অনুশীলন, যা শূন্য বা নূ্যনতম ব্যয়ে যে কোনো কার্যক্রমের ধারাবাহিক উন্নয়নের ওপর আলোকপাত করে। শিল্প, বাণিজ্য, ব্যাংকিং, স্বাস্থ্যসেবা, প্রশাসন, দৈনন্দিন জীবনযাপনসহ সব ক্ষেত্রেই কাইজেন অনুসরণ করা যেতে পারে। এটি বাস্তবায়নের ফলে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, কর্মপরিবেশ উন্নয়ন ও অপচয় রোধ সম্ভব। বিশ্বব্যাপী মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এমএসএমই) অর্থনীতির চালিকাশক্তি হিসেবে স্বীকৃত।

দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের 'কাইজেন' বাস্তবায়নে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে গতকাল অনলাইনে কর্মশালার আয়োজন করে এসএমই ফাউন্ডেশন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ন্যাশনাল প্রডাকটিভিটি অর্গানাইজেশনের (এনপিও) মহাপরিচালক মুহাম্মদ মেসবাহুল আলম। সভাপতিত্ব করেন এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. মফিজুর রহমান। এসএমই ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এসএমই ফাউন্ডেশন 'এসএমইতে কাইজেন' কর্মসূচির আওতায় এখন পর্যন্ত ৫১টি এমএসএমইকে কারিগরি সহযোগিতা, ২৬৭ জন উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে।