বর্তমান অবৈধ সরকার ব্যাংক লুটপাট নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। বিদেশে পাচার হওয়া টাকা ফিরিয়ে আনতে পারছে না। সরকার দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

বুধবার বিকেল পৌনে ৫টায় ময়মনসিংহ নগরীর হরিকিশোর রায় সড়কে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে সারাদেশে বিরোধীমতের নেতাকর্মীদের হত্যা, মিথ্যা গায়েবী মামলায় গ্রেপ্তার ও পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে মহানগর বিএনপির আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  

খন্দকার মোশাররফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- দেশে দুর্ভিক্ষ আসছে। কিন্তু যারা দুর্ভিক্ষ সৃষ্টি করেছে তারা দুর্ভিক্ষ তাড়াতে পারবে না। তাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টি করে এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামাতে হবে।

নিরপেক্ষ নির্বাচনে দেশের জনগণ ভোট দেওয়ার সুযোগ পেলে আওয়ামী লীগের জামানত বাজেয়াপ্ত হবে বলে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দিনের ভোট রাতে দিয়েছিল। সিট পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলে তারা দিনের ভোট রাতে করত না। তারা জানে- এদেশের জনগণ নিরপেক্ষ নির্বাচনে ভোট দেওয়ার সুযোগ পেলে আওয়ামী লীগের জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। কারণ তারা দুর্নীতি লুটপাট করে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করে দিয়েছে। গণতন্ত্র হত্যা করেছে। 

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, জনগণের দাবি নিয়ে বিএনপি মাঠে নেমেছে। এতে সরকার ভীত হয়ে সারাদেশে গায়েবী মামলায় গ্রেপ্তার শুরু করেছে। নেতাকর্মীদের নির্যাতন করে ভয় ভীতি সৃষ্টি করেছে। ময়মনসিংহ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা ফয়সাল, সোহেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নেত্রকোনায় নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। আমরা এ ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

সমাবেশে মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক একেএম শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে যুগ্ম আহ্বায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দ ও অধ্যাপক শেখ আমজাদ আলীর যৌথ সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোতাহার হোসেন তালুকদার, মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী রানা, শাহ শিব্বির আহম্মেদ ভুলু, অ্যাডভোকেট এমএ হান্নান খান প্রমুখ।