আবারও সিআইপি হলেন সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান

প্রকাশ: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

টানা দশম বারের মতো শিল্প ও বাণিজ্য খাতের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব বা সিআইপি মনোনীত হয়েছেন দেশের বিশিষ্ট শিল্পদ্যোক্তা এস এম গ্রুপ অব কোম্পানিজের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুক্তিযুদ্ধের সক্রিয় ছাত্রনেতা সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান।

২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো এই মর্যাদা লাভের পর থেকে বিগত প্রতি বছরই তিনি সরকার কর্তৃক বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সিআইপি মনোনীত হয়ে আসছেন। বুধবার হোটেল কন্টিনেন্টালে পণ্য রফতানি ও ট্রেড বিভাগে সন্মানিত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগণকে রফতানি বাণিজ্যে উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ তার হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব টিপু মুনশি। এর মাধ্যমে তিনি রফতানি ও ট্রেড বিভাগে চতুর্থবারের মতো এই সম্মাননা অর্জন করলেন।

জনাব সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান দীর্ঘকাল ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যে কাটানোর পর গত দশকের শুরুর দিকে দেশের শিল্পখাতে বিনিয়োগ শুরু করেন। যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও সুদানে রিয়েল এষ্টেট এবং ইষ্পাত শিল্পে বিনিয়োগের ধারাবাহিকতায় দেশে ফিরে তিনি বিনিয়োগ শুরু করেন শ্রমঘন ও শতভাগ রফতানিমুখী তৈরী পোশাক শিল্পে। এরপর সময়ের ব্যবধানে তার বিনিয়োগের পরিসর দ্রুত বিস্তৃত হয়েছে সিরামিকস, ফার্মাসিউটিক্যালস, গণমাধ্যম, আবাসন ও নির্মাণ, ফুড অ্যান্ড বেভারেজ, পাটজাত পণ্য, বহুমুখী কৃষি খামার, বিপণন চেইন, পর্যটনসহ বিভিন্ন খাতে। তার প্রতিষ্ঠিত এস এম গ্রুপ অব কোম্পানিজের আওতাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোতে বর্তমানে প্রায় ১২ হাজারেরও অধিক নিবেদিত প্রাণ কর্মী নিয়োজিত রয়েছেন।

দীর্ঘকাল প্রবাসে কাটিয়ে দেশে ফিরে আসা সৈয়দ আনোয়ারুজ্জামানের তিন সন্তানের প্রত্যেকেই বিদেশে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করে ফিরে এসেছেন। তারা সকলেই এস এম গ্রুপের আওতাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোর উত্তরোত্তর সমৃদ্ধির জন্য কাজ করে চলেছেন। তার স্ত্রীও একজন সফল ব্যবসায়ী।

সৈয়দ এ. কে. আনোয়ারুজ্জামান অনেকগুলো দ্রুত বিকাশমান শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব প্রদানের পাশাপাশি বিভিন্ন রকম সমাজকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ডেও সক্রিয়ভাবে যুক্ত রয়েছেন। একইসঙ্গে তিনি দেশের বেসরকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি