ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২০   

হিলি (দিনাজপুর) সংবাদদাতা

ট্রেন থেকে পেঁয়াজ খালাস করছেন শ্রমিকরা

ট্রেন থেকে পেঁয়াজ খালাস করছেন শ্রমিকরা

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি দুই মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে ভারতের নাসিক থেকে পেঁয়াজের প্রথম চালান নিয়ে ভারতীয় মালবাহী ট্রেনটি দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশন আসে। এরপর ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক শহীদুল ইসলাম শহীদ জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশে পেঁয়াজের সংকট দেখা দেয়। ফলে দাম বাড়তে থাকে। এ অবস্থায় গত ২২ মে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করার জন্য এলসি করা হয়। এরপর নাসিক থেকে মালবাহী ট্রেনটি ৪২টি বগিতে ১ হাজার ৭০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ নিয়ে বাংলাদেশে রওনা দেয়। পেঁয়াজবোঝাই মালবাহী ট্রেনটি বুধবার মধ্যরাতে দিনাজপুরের বিরল রেলবন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশ করে। সেখানে পেঁয়াজের চালানটির কার্যক্রম শেষ হলে বৃহস্পতিবার সকালে হিলি রেলস্টেশনে এসে পৌঁছায়। এসময় মালবাহী ট্রেন থেকে দ্রুত পেঁয়াজ খালাস করে নেওয়া হয়। এরপর বাজারে দ্রুত সরবরাহের জন্য আমদানি করা পেঁয়াজ ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হচ্ছে।

আমদানিকারক শহীদুল ইসলাম শহীদ আরও জানান, সব খরচসহ ভারত থেকে প্রতি কেজি পেঁয়াজ আমদানিতে খরচ পড়েছে ২১-২২ টাকা। আর প্রকারভেদে ২৩-২৭ টাকায় ব্যবসায়ীদের কাছে পাইকরি বিক্রি করা হচ্ছে। 

কিছুদিনের মধ্যে দ্বিতীয় চালানটি দেশে আসবে বলেও জানান তিনি।