ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে জাতীয় গাইডলাইনের দ্বিতীয় সংস্করণ উম্মোচন

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে জাতীয় গাইডলাইনের দ্বিতীয় সংস্করণ উম্মোচন

ছবি: সমকাল

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | ২১:৩৭

‘হাইপারটেনশন’ এক নীরব ঘাতক। হাইপারটেনশনের কারণে ডায়াবেটিক, স্ট্রোক, কিডনি, হ্নদরোগসহ  বহুবিধ রোগের বৃদ্ধি ও ঝুঁকি দুইই বেড়ে যাচ্ছে। অসচেতনতা এবং অজ্ঞতার কারণে হাইপারটেনশন কাঙ্খিত মাত্রায় নিয়ন্ত্রণে আসছে না। সব বয়সভেদেই হাইপারটেনশন ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে করে রোগীদের চিকিৎসায় সরকার ও ব্যক্তির খরচ বেড়েই চলেছে। এমতাবস্থায় ‘হাইপারটেনশন’ সম্পর্কে সর্বত্র সচেতনতা আরও বাড়াতে হবে। একই সঙ্গে হাইপারটেনশন আরও  নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে গবেষণাবিভিত্তিক কার্যক্রমের বিস্তৃতি ঘটাতে হবে।
 
আজ বুধবার হোটেল সোনারগাঁওয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর-এর নন কমিউনেকবেল ডিজিস কন্ট্রোল প্রোগ্রাম (এনসিডিসি) এর উদ্যোগে এবং জাইকা ও ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় আয়োজিত হাইপারটেনশন (উচ্চ রক্তচাপ) বিষয়ক জাতীয় নির্দেশিকা (গাইডলাইন)-এর দ্বিতীয় সংস্করণের উন্মোচন এবং আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং বিশেষ অতিথিবৃন্দ এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ডাক্তার শরফুদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, নতুন গাইডলাইনে ‘হাইপারটেনশন’ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে অনেক ধরনের তথ্য রয়েছে। এই তথ্য সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে  বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (শিক্ষা)-এর মহাপরিচালক প্রফেসর মোঃ টিটু মিয়া, জাইকার সিনিয়র রিপ্রেজেনটেটিভ তাকাশি কোমোরি, কিডনি ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট প্রফেসর হারুন উর রশিদ,  স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক প্রফেসর আহমেদুল কবীর, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অফ বাংলাদেশের মহাসচিব প্রফেসর খন্দকার আব্দুল আওয়াল রিজভী এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এনসিডিসির লাইন ডিরেক্টর প্রফেসর মোহাম্মদ রোবেদ আমীন।

অনুষ্ঠানে সদ্য প্রকাশিত  গাইডলাইনের ( দ্বিতীয় সংস্করণ) বিভিন্ন অধ্যায়ের ওপর আলোচনা করেন অধ্যাপক সোহেল রেজা চৌধুরী, অধ্যাপক আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী, অধ্যাপক এসএম মোস্তফা জামান, অধ্যাপক ফজিলাতুন্নেছা মালিক, অধ্যাপক এমএস জহিরুল হক, অধ্যাপক ইন্দ্রজিত প্রসাদ, অধ্যাপক শিরিণ আফরোজ এবং ডা. সাব্বির হায়দার। অনুষ্ঠানের সায়েন্টিফিক পার্টনার হিসেবে ছিল ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন এনসিডিসির প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডাঃ ফজলে এলাহী খান। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালসের নির্বাহী পরিচালক (সেলস) আশরাফ উদ্দিন আহমেদ।

আরও পড়ুন

×