দেশের বাইরে থেকে অনলাইনে ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা। টাকা বা বৈদেশিক মুদ্রায় প্রস্তাবিত প্রতিষ্ঠানের নামে এ হিসাব খোলা যাবে, যা সাময়িক অ্যাকাউন্ট হিসেবে বিবেচিত হবে। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ থেকে এ বিষয়ে সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো হয়।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, বিদেশি বিনিয়োগকারীর প্রস্তাবিত প্রতিষ্ঠানের নামে অনলাইনে সাময়িক হিসাব খোলার ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোকে নিয়মিত গ্রাহকদের মতো নিয়ম মানতে হবে। কোম্পানি প্রতিষ্ঠার পর সাময়িক হিসাব বন্ধ করে নিয়মিত হিসাব খুলতে হবে। এক্ষেত্রে সাময়িক হিসাবে কোনো অর্থ থাকলে তা নিয়মিত হিসাবে স্থানান্তর করা যাবে।

সংশ্নিষ্টরা জানান, সাধারণভাবে যে কোনো অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য আগে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে কেওয়াইসি ফরম পূরণের বাধ্যবাধকতা ছিল। এখন বাংলাদেশের নাগরিক বা প্রতিষ্ঠান অনলাইনে হিসাব খুলতে পারে। তবে বিদেশি প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্ট খুলতে কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন বা প্রোপাইটারশীপের কপি, প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স, অ্যাকাউন্ট পরিচালনাকারীর পাসপোর্টের কপিসহ বিভিন্ন কাগজ দিতে হয়।

চলতি বছরের মার্চে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের এক নির্দেশনার মাধ্যমে প্রথমবারের মতো অনলাইনে বাংলাদেশি কোনো প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্ট খোলার সুযোগ দেওয়া হয়। এর আগে গত বছর অপর এক নির্দেশনার মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্রধারীদের ঘরে বসে ব্যক্তি হিসাব খোলার সুযোগ দেওয়া হয়।

গত মার্চের নির্দেশনার বিষয়টি উল্লেখ করে গতকালের সার্কুলারে বলা হয়, ব্যবসা সহজীকরণ এবং পরিবেশবান্ধব ব্যাংকিং কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে বিদ্যমান পদ্ধতির পাশাপাশি ব্যাংকগুলোর ওয়েবসাইট বা অ্যাপের মাধ্যমে কিংবা বাংলাদেশের ওয়ান স্টপ সেবা প্রদানকারী সরকারি সংস্থার ওয়েবসাইট বা অ্যাপের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে অনলাইনে ব্যাংক হিসাব খোলা যাবে। সরকারি এসব সংস্থার মধ্যে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষ এবং বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কথা উল্লেখ করা হয়।

মন্তব্য করুন