সাধারণ বীমা করপোরেশনের ২৬ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির অডিট অ্যান্ড কমপ্লায়েন্স বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. আবুল কাশেমকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

সোমবার রাজধানীর মতিঝিল এলাকা থেকে দুদকের সহকারী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম তাকে গ্রেপ্তার করেন।

জানা গেছে, গ্রেপ্তারের পর সোমবার তাকে আদালতে সোপর্দ করে দুদকের পক্ষ থেকে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন জানানো হয়। শুনানি শেষে সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালতের আদেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দুদক সূত্র জানায়, ভুয়া নথি তৈরি করে সরকারি ওই প্রতিষ্ঠানের বীমা প্রিমিয়ামের ২৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০২০ সালের ৯ নভেম্বর আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। এ মামলাটি তদন্ত করছেন দুদকের সহকারী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম। তদন্ত পর্যায়ে সোমবার ওই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দুদক সূত্র জানায়, আসামি আবুল কাশেম সাধারণ বীমা করপোরেশনের নামে ঢাকায় এপিম ব্যাংকের ইমামগঞ্জ শাখায় একটি ব্যাংক হিসাব খোলেন। ওই সময় তিনি সাধারণ বীমা করপোরেশনের পর্ষদ সভার একটি জাল রেজুলেশন দাখিল করেন। 

ওই হিসাব খোলার ফরমে অজ্ঞাত রফিকুল ইসলামকে সাধারণ বীমা করপোরেশনের ডিজিএম উল্লেখ করে ব্যাংকে হিসাব পরিচালনাকারী হিসেবে দেখান। এর পর সরকারি প্রিমিয়ামের টাকা অবৈধভাবে ওই হিসাবে জমা করতে থাকেন।

১০ বছরের বেশি সময় ধরে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রিমিয়ামের চেক সাধারণ বীমা করপোরেশন খাতে জমা না দিয়ে নিজের ওই ব্যাংক হিসাবে জমা করেন। পরবর্তী সময়ে ওই হিসাব থেকে অন্যান্য ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের জমা হওয়া প্রিমিয়ামের মোট ২৬ কোটি ১৪ লাখ ৯৮ হাজার ২০৩ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেন।