করোনার কারণে কঠোর বিধিনিষেধে কর্মহীন হয়ে পড়া ১১ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় শিল্পগ্রুপ প্রাণ-আরএফএল। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ওই খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়।

গত ২৩ থেকে ৩০ জুলাই রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে এবং গাজীপুর, নরসিংদী, রাজশাহী, নাটোর ও ঝিনাইদহ জেলায় ১১ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় প্রশাসন এই কাজে সহযোগিতা করে। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, তেল, সেমাই, ইউএইচটি দুধ ও নুডুলস।

এ বিষয়ে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল বলেন, 'কঠোর বিধিনিষেধের কারণে মানুষ কার্যত গৃহবন্দী। উপার্জন না থাকায় অনেক পরিবার অসহায় জীবনযাপন করছে। তাই সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে ক্ষতিগ্রস্ত দিনমজুর, রিকশা-ভ্যানচালকসহ বিভিন্ন পেশার শ্রমজীবী মানুষকে সহায়তা করছি।' তিনি আরও বলেন, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ মানুষের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি আর্তমানবতার সেবায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। বিশেষ করে বিভিন্ন দুর্যোগকালে অসহায় দরিদ্রদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে।'

গত বছরের মার্চে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হলে 'পাশে আছি বাংলাদেশ' কর্মসূচির আওতায় খাদ্য সামগ্রী প্রদান শুরু করে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ। এ পর্যন্ত কর্মসূচির আওতায় কর্মহীন হয়ে পড়া ৮০ হাজারেরও বেশি পরিবারের মাঝে গ্রুপের পক্ষ থেকে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, নাটোর ও ভোলার ১৯টি হাসপাতালে মাস্ক, পিপিই, হ্যান্ড গ্ল্যাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও করোনার নমুনা সংগ্রহের বুথ প্রদান করেছে গ্রুপটি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি