স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ চালু করেছে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড ‘স্মার্ট কার্ড’। সহজ ঋণ সুবিধা, ডিজিটাল রিওয়ার্ড, সেলফ-সার্ভিস সুবিধা ইত্যাদি পাওয়া যাবে অনন্য এ কার্ডের মাধ্যমে। রোববার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে স্মার্ট কার্ডের উদ্বোধন করেন ব্যাংকের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। 

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাসের এজাজ বিজয় বলেন, ডিজিটাল লাইফস্টাইল, সামাজিক দায়িত্ববোধ এবং  দূরদর্শী মানসিকতায় বিশ্বাসীরা এ কার্ড ব্যবহার করে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন। এটি দেশের সর্বপ্রথম কার্বন-নিউট্রাল কার্ড। এছাড়া সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখার ক্ষেত্রে  কার্ড বিশেষভাবে উপযোগী যার মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত তরুণদের, বিশেষত মেয়েদের ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানো যাবে। এছাড়াও এই কার্ড জ্ঞান এবং লাইফস্টাইল ওয়েবসাইট সাবস্ক্রিপশনের ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা দেবে। তিনি এ উদ্যোগে যুক্ত হওয়ার জন্য ভিসা কার্ডকে ধন্যবান দেন। 

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশের  ভোক্তা, বেসরকারি ও ব্যবসায়িক ব্যাংকিং প্রধান সাব্বির আহমেদ বলেন, ‘এই স্মার্ট কার্ড তরুণ গ্রাহকদের দৈনন্দিন চাহিদা পূরণ ও নানা সুবিধা দেবে। এর মাধ্যমে ভোক্তারা দৈনন্দিন ব্যয়ের মধ্য দিয়ে বিভিন্নভাবে উপার্জন এবং সঞ্চয় করতে পারবেন। এছাড়া কার্ডহোল্ডাররা প্রয়োজনে সুদমুক্ত কিস্তি সুবিধাও পাবেন।’ 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, স্মার্ট কার্ডটিতে ক্যাশ-ব্যাক, সেভিংস ও মূল্য ছাড় ইত্যাদি সুবিধা রয়েছে। বর্তমানে স্মার্টকার্ড ব্যবহারকারীরা ফুডপান্ডা, দারাজ, পিৎজাহাট ও পাঠাও রাইডসে নানা ছাড় পাচ্ছেন। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশের হেড অব করেপারেট অ্যাফেয়ার্স বিটপী দাস চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।