শেয়ারবাজারে বিনিয়োগে গঠিত ২০০ কোটি টাকার বিশেষ তহবিল থেকে নীতিমালা লঙ্ঘন করে বিনিয়োগ করায় বেসরকারি এক্সিম ব্যাংক ও প্রিমিয়ার ব্যাংককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বৃহস্পতিবার এ জরিমানা করে ব্যাংক দুটিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

একই অপরাধে আরও চার ব্যাংককে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই চার ব্যাংক হলো- গ্লোবাল ইসলামী, ইস্টার্ন, ইউনিয়ন এবং অগ্রণী ব্যাংক।

২০১৯ সালে শেয়ারবাজারে ক্রমাগত দরপতন ঠেকাতে বাংলাদেশ ব্যাংক রেপোর মাধ্যমে ২০০ কোটি টাকার ঋণ নিয়ে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করার জন্য সব বাণিজ্যিক ব্যাংককে বিশেষ তহবিল গঠনের সুযোগ দেয়। এ তহবিল থেকে বিনিয়োগের সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। কিছু ব্যাংক ওই নীতিমালা লঙ্ঘন করে এ তহবিল থেকে বিনিয়োগ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

বেসরকারি খাতের এক্সিম ও প্রিমিয়ার ব্যাংক নীতিমালা লঙ্ঘন করে শেয়ার কিনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তদারক কার্যক্রম শুরুর প্রেক্ষাপটে তা বিক্রি করে দেয়। এ কারণে লঘু শাস্তি হিসেবে তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অপর চার ব্যাংককে সতর্ক করে বলা হয়েছে, ভবিষ্যতে নীতিমালা লঙ্ঘন করে এ তহবিল থেকে বিনিয়োগ করা হলে বিশেষ তহবিল বাতিল করা হবে।

সাম্প্রতিক সময়ে শেয়ারবাজার সূচক বাড়ার প্রেক্ষাপটে ব্যাংকগুলো অস্বাভাবিক কোনো বিনিয়োগ কার্যক্রমে জড়িয়ে পড়ছে কি-না, সে বিষয়ে তদারকি বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সম্প্রতি বেআইনি বিনিয়োগের দায়ের চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংক এনআরবিকে ৪৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংককে ২৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।