বিভিন্ন সংস্থার নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ৮৭ শিক্ষার্থীসহ ১২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেছেন আদালত। 

মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত হওয়ায় ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আবু বকর ছিদ্দিক বুধবার নথি সিএমএম আদালতে পাঠানোর আদেশ দেন। অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে এ মামলার বিচার শুরু হলো।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৮ সালের ২০ অক্টোবর ঢাবির 'ঘ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার আগের রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হল থেকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসম্পাদক মহিউদ্দিন রানা ও আবদুল্লাহ আল মামুনকে আটক করে সিআইডি। পরদিন তাদের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন এবং ১৯৮০ সালের পাবলিক পরীক্ষা আইনে মামলা করা হয়। মামলা তদন্ত করে এ চক্রের মোট ১২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা। যারা বিভিন্ন সংস্থার নিয়োগ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস ও জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত। তাদের মধ্যে ৮৭ জন ঢাবির শিক্ষার্থী। 

এরই মধ্যে এ মামলায় ৪৬ আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বর্তমানে ৯ আসামি পলাতক।