'গ্রিন ইনক্লুসিভ বিজনেস চ্যাম্পিয়ন্স অ্যাওয়ার্ড- ২০২১' পেয়েছে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসি। পরিবেশবান্ধব গ্রিন হাই-টেক শিল্প ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার পেল ওয়ালটন। 

পাশাপাশি একটি আধুনিক, রিসোর্স-ইফিশিয়েন্ট, অন্তর্ভুক্তি ও প্রতিযোগিতামূলক অর্থনীতিতে রূপান্তরে বিশেষ অবদান রাখায় ওয়ালটনকে ওই পুরস্কার দেয় গ্রিন টেক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার রাজধানীর শুটিং ফেডারেশনে 'গ্রিন ইনক্লুসিভ বিজনেস চ্যাম্পিয়ন্স- ২০২১' শীর্ষক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে প্রতিষ্ঠানটি। এতে প্রধান অতিথি পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রির ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর (ডিএমডি) আলমগীর আলম সরকার এবং ওয়ালটন কম্প্রেসরের চিফ বিজনেস অফিসার (সিবিও) মো. রবিউল আলম।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জম্ম শতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ ব্যাংকের টেকসই আর্থিক বিভাগের সহযোগিতায় 'গ্রিন ইনক্লুসিভ বিজনেস চ্যাম্পিয়ন্স অ্যাওয়ার্ড- ২০২১' আয়োজন করা হয়। এর উদ্দেশ্য, বাংলাদেশে টেকসই, সবুজ ও পরিবেশসম্মত ইন্ডাস্ট্রি স্থাপনে অগ্রগামীদের চিহ্নিত ও স্বীকৃতি দেওয়ার পাশাপাশি ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করা।

উল্লেখ্য, ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ নিশ্চিতে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) গোলাম মুর্শেদ নিয়েছেন 'বেটার বাংলাদেশ টুমরো' শীর্ষক উদ্যোগ। এর মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে কাজ করছে ওয়ালটন। 'বেটার বাংলাদেশ টুমরো'র কার্যক্রমে জলবায়ু পরিবর্তন ও এর প্রভাব মোকাবিলা, জলজ প্রাণ ও পরিবেশ সংরক্ষণ, স্থলজ বাস্তুতন্ত্রের সুরক্ষাসহ এসডিজির ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অবদান রাখছে ওয়ালটন। যে কারণে গ্রিন হাই-টেক শিল্পপ্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটন পুরস্কৃত হয়েছে।