শেয়ারবাজারে প্রি-ওপেনিং সেশনে শেয়ার কেনাবেচার আদেশ দেওয়ার সুবিধা আপাতত বন্ধ থাকবে। আজ রোববার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। তবে আগের মতো ক্লোজিং সেশনে ক্লোজিং প্রাইসে বাড়তি ১০ মিনিট শেয়ার কেনাবেচার সুযোগ অব্যাহত থাকবে।

গত বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে আদেশ জারি করেছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সংস্থার নির্বাহী মুখপাত্র রেজাউল করিম সমকালকে এ তথ্য জানান।

জানা গেছে, কেউ কেউ প্রি-ওপেনিং সেশনে কম দামে শেয়ার বিক্রি করে দরপতনের চেষ্টা করেছে। এর ফলে দরপতন ত্বরান্বিত হচ্ছে। এ কারণে বিএসইসি এ সেশন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

লেনদেন বাড়াতে ২০২০ সালের নভেম্বরে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে প্রি-ওপেনিং মার্কেট সেশন চালু করা হয়। সকাল ১০টায় লেনদেন শুরুর আগের ১৫ মিনিটকে প্রি-ওপেনিং সেশন বলা হয়। এ সময় শেয়ারের ক্রেতা ও বিক্রেতা ক্রয়-বিক্রয় আদেশ দিতে পারতেন। নির্দিষ্ট নিয়মে দর মিললে ১০ টায় লেনদেনের শুরুতেই ওই লেনদেন সম্পন্ন হতো এবং তার ভিত্তিতে মূল্যসূচকও বাড়ত বা কমত।