গতকাল দিনভর আলোচনায় ছিলেন সাকিব। বাঁহাতি এ অলরাউন্ডার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একদিনের সিরিজ থেকে ছুটি নিচ্ছেন বলে নিউজ হয়। অথচ সাকিবকে তিন সংস্করণেই রাখা হয়েছে। ছুটি প্রসঙ্গে সাকিবের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, 'আমি কোনো সিরিজ থেকে ছুটি চাইব না। বিসিবি বিশ্রাম দিলে স্বাগত জানাব। বিশেষ করে যে সিরিজগুলো অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ, আমাকে না খেলিয়ে অন্য খেলোয়াড়দের সুযোগ দিলে ভালো। পাইপলাইনের খেলোয়াড়রা তৈরি হতে পারবে। সিনিয়ররা চলে গেলে যেন শূন্যতা তৈরি না হয়।' 

সাকিবকে একদিনের সিরিজ থেকে বিশ্রাম দেওয়া হবে কিনা জানতে চাইলে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, 'সাকিব বিশ্রাম পাবে। ও চিঠি দিলেই ছুটি কার্যকর হবে। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে নিশ্চয়ই ওর কথা হয়েছে।' 

টেস্ট এবং টি২০-র পর ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ওয়ানডে বিশ্বকাপ সুপার লিগের সিরিজ না হওয়ায় সে সময় ছুটি নিয়ে পরিবারকে সময় দেবেন বাঁহাতি এ অলরাউন্ডার। বিসিবিও তাতে আপত্তি করেনি। স্কোয়াডে থাকলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে একদিনের ক্রিকেট সিরিজ খেলবেন না বাঁহাতি এ অলরাউন্ডার।

চোটের কারণে পেসার শরিফুল ইসলাম টেস্টে না থাকলেও ওয়ানডে এবং টি২০ দলে রাখা হয়েছে। তাসকিন আহমেদ আছেন ওয়ানডে দলে। প্রধান নির্বাচক নান্নু জানান, ফিট থাকলে টি২০ স্কোয়াডে ১৬তম সদস্য হিসেবে যুক্ত করা হবে তাকে।