ওশাদা ফার্নান্দোকে ফিরিয়ে লঙ্কান শিবিরে প্রথম ধাক্কা দেন পেসার এবাদত। এরপর তিনে নামা কুশল মেন্ডিসকে তুলে নিয়েছেন সাকিব। তবে অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ফিফটি করে দারুণ দৃঢ়তা নিয়ে খেলছেন। 

শ্রীলঙ্কা ৪৫ ওভার শেষে ২ উইকেটে ১৩৯ রানে ব্যাট করছে। করুনারত্নে ৬৬ রানে খেলছেন। তার সঙ্গী নাইট ওয়াচম্যান কাসুন রাজিথা। কুশাল মেন্ডিস ১১ রানে লেগ বিফোর হয়েছেন। ওসাদে তিনবান জীবন পাওয়ার পরে ৫৭ রানে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। বাংলাদেশের থেকে প্রথম ইনিংসে ২২২ রানে পিছিয়ে তারা।  

এর আগে ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ৩৬৫ রানে। সঙ্গীর অভাবে টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ডাবল সেঞ্চুরি উদযাপন করা হয়নি না মুশফিকের। ১৭৫ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন তিনি। তবে দারুণ ইনিংস খেলে দলকে বিপর্যয়ের হাত থেকে বাঁচান।

প্রথম দিন ২৪ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর লিটন দাসকে নিয়ে অসাধারণ জুটি গড়েন। দু’জন ২৫৩ রানের জুটি গড়ে এবং সেঞ্চুরি করে দিন শেষ করেন। দ্বিতীয় দিন লিটন ১৪১ রান করে আউট হয়ে যান। তাদের জুটি থামে রেকর্ড ২৭২ রানে।