চতুর্থ দিনের সকালে দ্রুত উইকেট তুলে নেওয়ার আশায় মাঠে নামে বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের লক্ষ্য ছিল, যত দ্রুত লঙ্কানদের অলআউট করে লিড নেওয়া যায়। তবে সেই আশায় গুঁড়েবালি! দারুণ ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশকে হতাশ করে শ্রীলঙ্কাকে প্রথম সেশনেই লিড এনে দিলেন ম্যাথুস-চান্দিমাল।

লাঞ্চ বিরতিতে যাওয়ার সময় শ্রীলঙ্কার রান ৫ উইকেটে ৩৬৯। স্বাগতিকদের চেয়ে তারা এগিয়ে ৪ রানে। ম্যাথুস খেলছেন ২ ছক্কা ও ৬ চারে ৯৩ রানে। তার সঙ্গী চান্দিমালের রান এক ছক্কা ও ৫ চারে ৬১। ষষ্ঠ উইকেটে এই দুইজনের অবিচ্ছিন্ন জুটি ২৫৩ বলে ১০৩ রানের।

এর আগে মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের রেকর্ড জুটিতে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস করে ৩৬৫ রান তোলে। মুশফিকুর রহিম দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৭৫ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন। লিটন কুমার খেলেন ১৪১ রানে ইনিংস। আর কেউ বিশ রানের ঘরে ঢুকতে পারেননি।