ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পুনরায় চালু করতে আদালতের মাধ্যমে গঠিত বোর্ডের কাছে আবেদন করেছেন কোম্পানিটির সাবেক চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন। একই আবেদনে শামীমা এবং তার মা ও বোনের স্বামীকে পরিচালনা বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার কথাও বলা হয়েছে। শামীমা নাসরিনের পক্ষে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম এ আবেদন করেন।

এ ছাড়া হাইকোর্টেও আরেকটি আবেদন করা হয়েছে, যেখানে ইভ্যালির প্রতিষ্ঠতা মো. রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে যেন অযথা মামলা দিয়ে হয়রানি না করা হয়, সে বিষয়ে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। শামীমা নাসরিনের পক্ষে তাদের আইনজীবী আহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গত ১৯ এপ্রিল ইভ্যালির অবসায়ন চেয়ে করা রিট মামলায় পক্ষভুক্ত হতে ইভ্যালির সাবেক চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের আবেদন গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। পরে আদেশে বলেন, এখন থেকে এ রিট মামলায় শামীমা নাসরিন ১৫ নম্বর বিবাদী হিসেবে গণ্য হবেন।

গত বছরের ১৮ অক্টোবর ইভ্যালি পরিচালনার জন্য আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের বোর্ড গঠন করেন হাইকোর্ট। এর আগে প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর আরিফ বাকের নামের এক গ্রাহক গুলশান থানায় ইভ্যালির মো. রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরদিন বিকেলে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার বাসা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। মো. রাসেল বর্তমানে একাধিক মামলায় কারাগারে আছেন। তবে তার স্ত্রী শামীমা নাসরিন জামিনে রয়েছেন।