বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বাসাবাড়ির এয়ার কন্ডিশনে (এসি) অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ হওয়ায় অসুবিধায় পড়ছেন মানুষ। এর সঙ্গে দেশজুড়ে চলমান লোডশেডিংয়ের কারণে এসির ব্যবহারের ওপর তার প্রভাব পড়েছে। অথচ এসির সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সাশ্রয় করা যায় এবং অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ কমিয়ে আনা যায়।

এসি উৎপাদন ও বিপণনের সঙ্গে সংশ্নিষ্টদের মতে, ধুলাবালি আটকে এসির ভেতরে পরিস্কার বাতাস যেতে সাহায্য করে এয়ার ফিল্টার। প্রতিদিনের ব্যবহারের ফলে ফিল্টারে ধুলাবালি জমে যায়, যা এসির ভেতর পরিষ্কার বাতাস যাওয়ার পথ বন্ধ করে দেয়। এমন অবস্থায় এসি সচল রাখতে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ ব্যবহারের প্রয়োজন হয়। নিয়মিত এয়ার ফিল্টার পরিস্কার করা হলে এসির কর্মক্ষমতা বাড়ে এবং বিদ্যুতের ব্যবহার কমে আসে। এ ছাড়া অনেক বাসায় দরজা-জানালায় ফাঁকা থাকার কারণে ঘরে এসির ঠান্ডা বাতাস আবদ্ধ থাকতে পারে না। ফলে ঘর ঠান্ডা করতে এসিকে বেশি বিদ্যুৎ খরচ করতে হয়। দরজা-জানালার এসব ফাঁকা স্থান বন্ধ করার মাধ্যমে ঠান্ডা বাতাসকে দীর্ঘক্ষণ ঘরে ধরে রাখা যায়। এভাবে বিদ্যুতের ব্যবহার কমানোর মাধ্যমে খরচ কমানো সম্ভব।

তাঁরা জানান, ইনভার্টার প্রযুক্তির এসি পুরোনো ধাঁচের এসির মতো পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় না। তার বদলে এটি ফ্যান এবং কম্প্রেশারের স্পিডকে নিয়ন্ত্রণ করার মাধ্যমে ঘরকে আরও ভালোভাবে ঠান্ডা হতে সাহায্য করে। এ ধরনের আধুনিক প্রযুক্তির এসি বেশি কার্যকর, পরিবেশবান্ধব এবং বাসাবাড়িতে ব্যবহার করার জন্য তুলনামূলকভাবে বেশি নিরাপদ। গরম এবং আর্দ্র আবহাওয়ায় ডিজিটাল ইনভার্টারযুক্ত বিদ্যুৎ-সাশ্রয়ী এসি ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো।

স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস জানিয়েছে, তারা বিদ্যুৎ-সাশ্রয়ী ও নির্ভরযোগ্য বিভিন্ন মডেলের এসি নিয়ে এসেছে। ডিজিটাল ইনভার্টার বুস্ট প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন উদ্ভাবনী প্রযুক্তির স্যামসাং এসি ব্যবহারকারীদের সেবা ও মানের নিশ্চয়তা দিচ্ছে। এতে আরও যুক্ত করা হয়েছে নিওডাইমিয়াম ম্যাগনেট এবং একটি টুইন টিউব মাফলার, যাতে অপ্রয়োজনীয় শব্দ কমে এসে এসির কর্মক্ষমতা বাড়ে এবং আরও টেকসই হয়। এ প্রযুক্তির মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৭৩ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয় করা যায়। স্যামসাংয়ের ডিজিটাল ইনভার্টার বুস্ট প্রযুক্তি ৪৩ শতাংশ দ্রুততার সঙ্গে বাতাসকে ঠান্ডা করে। স্যামসাং দিচ্ছে কম্প্রেশারের ওপর ১০ বছরের ওয়ারেন্টি। স্যামসাং স্টোরে ৬৮,৯০০ টাকা থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন দামে এ ধরনের এসি পাওয়া যাচ্ছে।