আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সব ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। প্রতিষ্ঠানটির কাছে পাওনা ১৭৪ কোটি টাকা আদায়ে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বকেয়া পরিশোধ না করলে প্রতিষ্ঠানটির হিসাব থেকে অর্থ কেটে এনবিআরের হিসাবে জমা করতে ব্যাংকগুলোকে অনুরোধ করেছে এনবিআর।

ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর সম্প্রতি পাঠানো এক চিঠিতে এনবিআর বলেছে, কর বাবদ আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজের কাছে ১৭৪ কোটি ২৬ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি এখনও তা পরিশোধ করেনি। এ অবস্থায় প্রতিষ্ঠানটির নামে থাকা সব ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করে দুই কর্মদিবসের মধ্যে অবহিত করতে হবে। এরপর সাত দিনের মধ্যে আকিজ ফুড কর পরিশোধ না করলে তাদের অ্যাকাউন্টে জমা থাকা অর্থ থেকে যতটুকু প্রয়োজন বৃহৎ করদাতা ইউনিটের নির্দিষ্ট অ্যাকাউন্টে জমা করতে হবে।

এনবিআরের চিঠিতে বলা হয়েছে, আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজের উৎপাদিত পণ্যের তালিকায় রয়েছে মিনারেল ওয়াটার, কোমল পানীয়, এনার্জি ড্রিংক, ফার্ম ফ্রেশ লিকুইড মিল্ক্ক, ফ্রুট জুস ইত্যাদি। ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে এনার্জি ড্রিংকের ওপর সম্পূরক শুল্ক্কের হার ২৫ শতাংশের জায়গায় ৩৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়। এ বিষয়ে ২০১৮ সালের ৭ জুন জারি করা এসআরওর বিষয়টি অবহিত করে বৃহৎ করদাতা ইউনিট থেকে চিঠি দেওয়া হয়।

তবে প্রতিষ্ঠানটি নির্দেশনা পরিপালন না করে ওই চিঠির ওপর আদালতে রিট পিটিশন দায়ের করে। হাইকোর্ট বিভাগ ২০২১ সালের জানুয়ারিতে সরকারের পক্ষে রায় দেন। এরপর আকিজ গ্রুপ আপিল বিভাগে সিভিল পিটিশন দাখিল করে। গত ১৯ জুন আপিল খারিজ করায় সরকারের দাবি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ রকম অবস্থায় বকেয়া কর আদায়ে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজের এ নির্দেশনা দেওয়া হলো।