মানিকগঞ্জের সিংগাইরে একটি সিএনজিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সিএনজিচালক রুবেল মিয়া বাদী হয়ে শনিবার রাতেই বিএনপির ১৩ নেতাকর্মীসহ অজ্ঞাত আরও ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে করেছে। ওই মামলায় সিংগাইর পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী আব্দুল গফুরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে মাঝ রাস্তায় একটি সিএনজিতে আগুন জ্বলতে দেখেন তারা। এরপর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।

এদিকে পুলিশ বলছে, পৌর বিএনপির মিছিল থেকে ওই সিএনজিতে আগুন দেয়া হয়। এসময় একটি ককটেলও বিস্ফোরণ হয়েছে। তবে কেউ হতাহত হয়নি।

সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্ল্যা জানান, ১০ ডিসেম্বরের ঢাকার গণসমাবেশকে সামনে রেখে রাতে পৌর বিএনপির একটি মিছিল বের হয়। মিছিল থেকেই তারা ককটেল বিস্ফোরণ করে এবং সিএনজিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ সিএনজিচালক বাদি হয়ে মামলা করেছেন। মামলার আসামি আব্দুল গফুরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জড়িত বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পৌর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম ভূইয়া (জয়) জানান, শনিবার দিন অথবা রাতে তাদের কোনো দলীয় কর্মসূচি ছিলো না।

তিনি বলেন, কেউ কোনো মিছিল, স্লোগান দিয়েছে কিনা তা আমার জানা নেই। সিএনজিতে আগুন দেওয়ার ঘটনা সাজানো হতে পারে। এর মাধ্যমে বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে নতুন মামলা দিয়ে হয়রানি করতে পারে পুলিশ।