ইউনিলিভার বাংলাদেশ (ইউবিএল) বগুড়ায় তাদের ওয়্যারহাউস ডিস্ট্রিবিউশন ডিপোতে প্রথমবারের মতো সোলার প্যানেল স্থাপন করেছে। এর মাধ্যমে ইউবিএল বাংলাদেশে তার বিতরণ নেটওয়ার্ককে নবায়নযোগ্য শক্তির আওতায় নিয়ে আসার যাত্রা করল। সৌরবিদ্যুতের প্লান্টটি বছরে ৫৩ হাজার ৫৬০ কেডব্লিউএইচআর বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। এ উদ্যোগ আগামী ১৫ বছরে ২০২ টন কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে ইউবিএলের দীর্ঘমেয়াদি লক্ষ্যপূরণে ভূমিকা রাখবে। ১১ বছর আগে চট্টগ্রামের কালুরঘাটে ইউবিএল তার সর্ববৃহৎ কারখানায় সোলার প্যানেল স্থাপনের মাধ্যমে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার শুরু করে। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ইউবিএলের প্রাথমিক লক্ষ্য টেকসই উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রাখা এবং প্রতিষ্ঠানটি ইতিবাচক পরিবেশ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সব সময়ই বাংলাদেশের ভোক্তাদের জীবন মান উন্নয়নে কাজ করে আসছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইউনিলিভার বাংলাদেশের সিইও জাভেদ আখতার, সাপ্লাই চেইন ডিরেক্টর রুহুল কুদ্দুস, ন্যাশনাল লজিস্টিকসের সিনিয়র ম্যানেজার দিলরুবা আহমেদসহ অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং অনুষ্ঠানে কারিগরি সহায়ক কোম্পানি সোলশেয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সহপ্রতিষ্ঠাতা ড. সেবাশ্চিয়ান গ্রোগ।

জাভেদ আখতার বলেন, ‘ডিস্ট্রিবিউশন ডিপোতে 'রুফটপ সোলার ইনস্টলেশন' স্থাপনের মাধ্যমে আমরা পরিবেশবান্ধব ডিস্ট্রিবিউশন নেটওয়ার্ক তৈরি ও আগামী ২০৫০ সাল নাগাদ নেট জিরো ইমিশনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এগিয়ে গেলাম।’