ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

জাতীয় বীমা দিবস আজ

জাতীয়  বীমা দিবস  আজ

.

 সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০১ মার্চ ২০২৪ | ০০:৩৭ | আপডেট: ০১ মার্চ ২০২৪ | ০৮:২৬

আজ জাতীয় বীমা দিবস। ২০২০ সাল থেকে সরকারিভাবে ১ মার্চ জাতীয় বীমা দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। এ বছর বীমা দিবসের প্রতিপাদ্য ‘করবো বীমা গড়বো দেশ, স্মার্ট হবে বাংলাদেশ’। বীমা বিষয়ে জনসাধারণের সচেতনতা বাড়ানোসহ আরও বেশি সংখ্যক মানুষকে বীমায় সম্পৃক্ত করতে দিবসটি রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন করা হচ্ছে। 
১৯৬০ সালের ১ মার্চ তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে আলফা লাইফ ইন্স্যুরেন্সে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যোগদান করেন। ওই দিনকে স্মরণীয় রাখতে ১ মার্চকে জাতীয় বীমা দিবস পালনের জন্য বেছে নেওয়া হয়।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী এবং বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিআইএ) সভাপতি শেখ কবির হোসেন। অনুষ্ঠানে ব্যাংকের মাধ্যমে বীমা, অর্থাৎ ব্যাংকাস্যুরেন্সের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

এ ছাড়া অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এবং আইডিআরএর উদ্যোগে ঢাকাসহ দেশব্যাপী জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় বীমা দিবস উদযাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বীমা দিবস পালনে বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এবং বেসরকারি খাতের বীমা কোম্পানিগুলোও এ দিবস পালনে নানা অনুষ্ঠান আয়োজন করবে।

জাতীয় বীমা দিবস-২০২৪ উপলক্ষে গত বুধবার বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) রাজধানীর দিলকুশায় নিজস্ব কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আইডিআরএ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী জানান, দেশে বর্তমানে মোট ৮২টি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান বীমা সেবা দিচ্ছে। বর্তমানে বীমার আওতায় আছেন দেশের ১ কোটি ৭১ লাখ ১০ হাজার মানুষ। লাইফ ও নন-লাইফ মিলে বীমা দাবি নিষ্পত্তির হার ২০২২ সালের তুলনায় ২০২৩ সালে ৪ শতাংশ বেড়েছে।

আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীমার গুরুত্ব অনুধাবন করে পুরোনো বীমা আইনকে ঢেলে সাজিয়ে ২০১০ সালে নতুন বীমা আইন প্রণয়ন করেন। পাশাপাশি বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ আইন করেন। এর পর এ খাতের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ২০১১ সালে বীমা অধিদপ্তর বিলুপ্ত করে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) প্রতিষ্ঠা করেন। ২০১০ সালের পর এখন পর্যন্ত ১০টি বিধি, ২০টি প্রবিধি এবং চারটি গাইডলাইন করা হয়েছে, যা বীমা শিল্পের উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রাখছে।

আরও পড়ুন

×