ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে বুধবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান কর্মসূচি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা। বৃধবার সকালে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী কর্মসূচি পালন করেন রাবির শিক্ষার্থীরা। এ সময় প্রক্টর লিয়াকত আলীর বিরুদ্ধে কর্মসূচিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়। তবে প্রক্টর বিষয়টি অস্বীকার করে বলেছেন, শুধু মাইক ব্যবহার করতে নিষেধ করা হয়। আজ ফের অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন শিক্ষার্থীরা। এর আগে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবন চত্বরে অবস্থান নেন। এর পর তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেন।

আরবি বিভাগের শিক্ষার্থী মাহফুজ আনাম বলেন, দেশের সবকিছু চলছে; শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। হল বন্ধ রাখলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কোয়ার্টারও বন্ধ করুন। শিক্ষার্থী মহাব্বত হোসেন মিলনের সঞ্চালনায় এতে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা বক্তব্য দেন। এ সময় ৬টি দাবি তুলে ধরেন শিক্ষার্থী লিখন আহমেদ।

এদিকে, ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন হয়। এ সময় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীসহ ছাত্র ইউনিয়ন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃৃতিক জোট ও ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতারা সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন। মানববন্ধনে সরকার ও রাজনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল আলম বলেন, সরকার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রহসনমূলক আচরণ করছে।

আরও বক্তব্য দেন ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হক রনি ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী আবু নাহিয়ান।