হেফাজতের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে আগামী মঙ্গলবার থেকে ট্রেনের যাত্রাবিরতি ফের শুরু হচ্ছে।

মঙ্গলবার থেকে তিনটি মেইল ট্রেন ও একটি কমিউটার ট্রেন এবং পরদিন বুধবার থেকে একটি আন্তঃনগর ট্রেন স্টেশনে যাত্রাবিরতি করবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ট্রাফিক ট্রান্সপোর্টেশন শাখার উপপরিচালক (অপারেশন) রেজাউল হক স্বাক্ষরিত একটি পত্র থেকে  রোববার এ তথ্য জানা যায়। ওই পত্রে বলা হয়েছে, সাময়িকভাবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনকে 'ডি ক্লাস' স্টেশনে রূপান্তর করে ট্রেন চালু করা হচ্ছে। ১৫ জুন ঢাকা-সিলেট-ঢাকা পথের সুরমা মেইল, ময়মনসিংহ-চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহ পথের নাসিরাবাদ এপপ্রেস, আখাউড়া-ঢাকা-আখাউড়া ও ঢাকা-ব্রাহ্মণবাড়িয়া-ঢাকা পথের তিতাস কমিউটার ট্রেন যাত্রাবিরতি করবে। ১৬ জুন থেকে যাত্রাবিরতি করবে ঢাকা-সিলেট-ঢাকা পথের পারাবত এপপ্রেস।

গত ২৬ মার্চ হেফাজতের তাণ্ডবে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন। পরদিন ২৭ মার্চ থেকে স্টেশনে পূর্বনির্ধারিত সব ট্রেনের যাত্রাবিরতি বন্ধ করে দেওয়া হয়। হামলায় স্টেশনের সিগন্যালিং সিস্টেম বিপর্যয়ের কারণে সাময়িক ওই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল।

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনকে সংস্কার করে পূর্বনির্ধারিত সব ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান অব্যাহত রয়েছে। কয়েকটি সংগঠনের পক্ষ থেকে ২০ জুনের মধ্যে ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে আলটিমেটাম দেওয়া হয়।