করোনাভাইরাসের নতুন ভেরিয়েন্ট ওমিক্রনের সংক্রমণে আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষা যেন স্থগিত হয়ে না যায়, সেজন্য জনসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

তিনি বলেন, ‘করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। কারণ এটি একটি বিধ্বংসী ভাইরাস। এ ভাইরাস মানুষকে শারীরিকভাবে ক্ষতি করার এমনকি মেরে ফেলার ক্ষমতাও রয়েছে। অতএব আমাদের খুব সাবধান হতে হবে।’

আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

দীপু মনি বলেন, ‘এই পরীক্ষা আমাদের শিক্ষার্থীদের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এসএসসি পরীক্ষা হল প্রথম গুরুত্বপূর্ণ এবং এইচএসসি পরীক্ষা হল তার পরের বিরাট গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা। এই পরীক্ষার পরই তারা জীবনে উচ্চ শিক্ষায় কোথায় যাবে সেগুলো সব ঠিক করে। কাজেই এই পরীক্ষাটি সবার জন্য একটি বড় মাইলফলক। সেই পরীক্ষাটি যেন এই সংক্রমণের জন্য কোনভাবে বাধাগ্রস্ত না হয় সবাই শিক্ষার্থীদের স্বার্থে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলব, যেন আমাদের সংক্রমণ না বাড়ে.... যেন এমন অবস্থা না হয় যে পরীক্ষা বন্ধ করে দিতে হয়।’ 

মঙ্গলবার দৈনিক চাঁদপুর প্রতিদিনের এক যুগ পদার্পণ উপলক্ষে লেখক সুহৃদ সম্মাননা, কোভিড-১৯ এ বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ সম্মাননাসহ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

করোনার সংক্রমণ কমে আসার পরিপ্রেক্ষিতে স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি আর নেই। মানুষের মুখে মাস্কও থাকছে না এখন। 

এ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, ‘এখন অধিকাংশের মুখেই মাস্ক দেখা যায় না। অনেকেই ঠিকমতো মাস্ক পড়ছেন না। তাই আমাদের সবার আবাই ঢিলেমি ঝেটিয়ে বিদায় করে স্বাস্থ্যবিধির মধ্যে যেতে হবে। সভা-সমাবেশ আবারও হয়তো কমিয়ে দিতে হবে। অনেক বেশি লোক সমাগম করে সভা-সমাবেশ মনে হয় না এখন আর চালু রাখা যাবে। আমাদের গাফিলতির কারণে মাস্ক না পড়ার কারণে সংক্রমণ যেন বেড়ে না যায়। জেনেশুনে স্বাস্থ্যবিধি না মানার মতো অবহেলা অপরাধ। কারণ স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে অবহেলার কারণে আপনার নিজেকে, আপনার আপনজনকে, আপনার পরিবার, প্রতিবেশীকে, দেশকে আপনি বিপদের মুখে ফেলছেন। দয়া করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। যথা সম্ভব নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন।’

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি এবং পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ইকবাল হোসেন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, পৌর মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার, চাঁদপুর সরকারি কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের সরকার, দৈনিক বাণিজ্য প্রতিদিনের সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার পলাশ, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সহসভাপতি সোহেল রুশদী।