নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে পরাজিত স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, ‘কেউ জবাবদিহির ঊর্ধ্বে নয়। সবাইকে জবাবদিহি করতে হবে। আমি মনে করি, ইভিএম পদ্ধতিতে কোনো রাজনৈতিক দলের নির্বাচনে অংশ নেওয়া উচিত হবে না।’

সোমবার নাসিক নির্বাচনের সময় গ্রেপ্তার ১০ নেতাকর্মীর মধ্যে আটজনের জামিন শুনানিতে এসে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

নির্বাচনের সময় তৈমূরের পক্ষে কাজ করায় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবিসহ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। এদের মধ্যে সোমবার ৮ জনের জামিন শুনানি অনুষ্ঠিত হয় নারায়ণগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আনিসুর রহমানের আদালতে। শুনানি শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করা হয়। অপর দু'জনের জামিন শুনানি মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সোমবার যারা জামিন পেয়েছেন তারা হলেন- জামাল হোসেন, আহসান হোসেন ভূঁঁইয়া, বোরহান ঢালী, জয়দেব মণ্ডল, মনির হোসেন, মমতাজ উদ্দিন, আহসান উল্লাহ ও আবু তাহের। আজ মঙ্গলবার মনিরুল ইসলাম রবি ও আশরাফ হোসেনের জামিন শুনানি হবে।

বিকেলে জেলগেটে কারামুক্তদের ফুল দিয়ে বরণ করেন তৈমূর। অনুসারীদের জামিন মঞ্জুরের পর তৈমূর বলেন, যারা গ্রেপ্তার হয়েছেন তারা সবাই কোনো না কোনোভাবে আমার নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তাদের প্রত্যেককে হেফাজতের সহিংসতার মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।