রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) উদ্ধার হওয়া সেই মর্টার শেলটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। বুধবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে এটির বিস্ফোরণ ঘটায় বগুড়া সেনানিবাসের বম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের একটি প্রতিনিধি দল। এতে নেতৃত্ব দেন ক্যাপ্টেন মো. মিনহাজ।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বধ্যভূমি এলাকার একটি পুকুর থেকে মর্টার শেলটি উদ্ধার করা হয়। সেটি অবিস্টেম্ফারিত ছিল।

প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, দুপুরে বগুড়া সেনানিবাসের বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এটির বিস্টেম্ফারণ ঘটিয়েছে। অনেক পুরোনো, তাই শক্তি কম ছিল। তবে সক্রিয় ছিল মর্টার শেলটি। মুক্তিযুদ্ধের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের এই এলাকায় পাকিস্তানিদের ক্যাম্প ছিল।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বধ্যভূমি এলাকায় জরিপ করে একটি অভিযান পরিচালনা করতে তাদের আহ্বান জানিয়েছি। আমাদের ধারণা, এখানে অভিযান চালালে মুক্তিযুদ্ধের সময়ের আরও অস্ত্র পাওয়া যাবে।



মন্তব্য করুন