বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজার ৩০৪ পদে শিক্ষক নিয়োগের অনলাইন আবেদনের সময় শেষ হচ্ছে শুক্রবার। আবেদনের সময় আর বাড়ানো হবে না বলে জানিয়েছেন বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন আহমেদ।

তবে অনেকে জানিয়েছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে সনদ তুলতে না পারা, সফটওয়্যার জটিলতা, তথ্য হালনাগাদসহ নানা সমস্যায় আবেদন করতে পারেননি।

এ বিষয়ে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান সমকালকে বলেন, আগে আবেদনের জন্য ১৫ দিন সময় দেওয়া হতো। এবার এক মাস দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সফটওয়্যারেও এবার কোনো ঝামেলা ছিল না। যারা সনদ আগে তোলেননি সেটি একান্তই তাদের ব্যক্তিগত বিষয়। কারণ পরীক্ষা দেওয়ার পর সনদ তোলার জন্য দীর্ঘদিন সময় ছিল।

আশরাফ উদ্দিন জানান, যারা ৩০ এপ্রিলের মধ্যে আবেদন শেষ করবেন, তারা আরও তিন দিন সময় পাবেন টাকা জমা দেওয়ার। এর মধ্যে আবেদনের সব কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। মে মাসের মধ্যেই চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হবে। আগামী মাসেই ৫৪ হাজার শিক্ষক চূড়ান্ত নিয়োগ পাবেন।

গত ৩০ মার্চ বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক নিয়োগের জন্য তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে এনটিআরসিএ। ২০১৮ সালের ১২ জুন এমপিও নীতিমালা জারির আগে সনদ অর্জন করা যেসব প্রার্থীর বয়স ৩৫ বছরের বেশি, তাদেরও আবেদনের সুযোগ রাখা হয়েছে। আর বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইনডেক্সধারী শিক্ষক যাদের নিবন্ধন সনদ রয়েছে, তারাও আবেদন করতে পারছেন।

এদিকে, গত ২৬ এপ্রিল তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের শিক্ষক পদের প্রার্থী হিসেবে আবেদনকারীদের আগামী ৬ মে নিবন্ধন সনদের স্ক্যান কপি পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নির্ধারিত ছকে প্রার্থীর রোল নম্বর, নাম, নিবন্ধন পরীক্ষায় পাসের সাল, ডিগ্রির নামসহ  office@ntrca.gov.bd ও ntrca2005@yahoo.com সনদের স্ক্যান কপি পাঠাতে হবে।