শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, অ্যাসাইনমেন্ট জমা নেওয়ার সঙ্গে ফিসের কোনো সম্পর্কে নেই। অ্যাসাইনমেন্টের জন্য কোনো ফি নেই। শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে চাঁদপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বিদ্যালয় বন্ধ থাকার কারণে দীর্ঘদিন অনেক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ের ফি (বেতন) পরিশোধ করেনি, যা এখন অনেকের জন্য কিছু বেশি হয়ে গেছে। ফি পরিশোধের জন্য হয়তো ইনস্টলমেন্টের মাধ্যমে বা অন্য কোনো ব্যবস্থা করা যেতে পারে। আর যাদের সামর্থ্য রয়েছে তাদের অবশ্যই ফি পরিশোধ করা উচিত। সেই ফি'র সঙ্গে অ্যাসাইনমেন্টের কোনো সম্পর্ক নেই এবং অ্যাসাইনমেন্টের সাথে মেলানো ঠিক হবে না।

তিনি বলেন, শুধু কভিড বা ডেঙ্গুর জন্য নয়, একটি সুস্থ সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য আমাদের সবাইকেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে চলা উচিত। স্বাস্থ্যবিধি মানা আমাদের অভ্যাসে পরিণত করা উচিত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নূরুল আমিন রুহুল, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, চাঁদপুর পৌর মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল, ফরিদগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমানসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দ।

পরে মন্ত্রী বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে হাইমচর বাজাপ্তি রমনীমোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের সম্প্রসারণ কাজের এবং বিকেল ৪টার দিকে হাইমচর দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।