গোলাপ ও রজনীগন্ধা দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে শিক্ষার্থীদের হলে বরণ করে নিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)। 

শনিবার সকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আবদুস সালাম শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়ার মাধ্যমে শুরু হয় শিক্ষার্থীদের হলে ওঠা কার্যক্রম।

এ সময় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, প্রক্টর অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন, প্রভোস্ট অধ্যাপক তপন কুমার জোদ্দারসহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 শিক্ষার্থীদের হলে বরণ করে নিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ইবি। ছবি: সমকাল 

এরপর একে একে অন্য হলগুলোতেও পরিদর্শন করে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ সময় শিক্ষার্থীদের গোলাপ, রজনীগন্ধা, চকোলেট, কলম, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারও দেওয়া হয়। কোনো কোনো হলে শিক্ষার্থীদের মিষ্টিও খাওয়ানো হয়।

সাদ্দাম হোসেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান বলেন, 'দেড় বছর পর আবারও আপনালয়ে ফিরেছি। আবারও হলের রুমমেটদের সঙ্গে আনন্দ-উচ্ছ্বাসে সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নিতে পারব। হলের নানা আয়োজনসহ গিটার হাতে কয়েকজন হারিয়ে যাব গানের সুরে। যেখানে মন খারাপের সুযোগ থাকবে না।'

হল প্রভোস্ট কাউন্সিল সভাপতি অধ্যাপক রেবা মণ্ডল বলেন, হলে যেখানে এক রুমে তিনজন বা চারজন শিক্ষার্থী থাকত, মেসে সেখানে হয়তো ৬-৮ জন করে থাকতে হতো। এই অবর্ণনীয় কষ্ট থেকে আমরা তাদের মুক্তি দিতে পেরেছি- এটাই আনন্দের বিষয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আবদুস সালাম বলেন, আজকে মনে হচ্ছে আমার বাগানটা পরিপূর্ণ হয়েছে। এত দিন ফুল ছাড়া বাগান ছিল। আমরা সবাই যেন দায়িত্বশীল আচরণ করি। এই দেড় বছরের যে বিচ্ছিন্নতা ছিল, তা ভুলে গিয়ে আমরা আজকে মূল স্রোতে ফিরে এলাম। সবাই যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি।