রাজশাহীর পবা উপজেলায় চরমাজারদিয়া সীমান্তে বাংলাদেশি এক যুবকের গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে।

বুধবার সকালে গ্রামবাসী ওই মৃতদেহ দেখে পুলিশে খবর দেন। বিএসএফের গুলিতে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

নিহত মিঠুন আলী (২৫) পবার দামকুড়া থানার চর মাঝাড়দিয়াড় এলাকার মনজুর আলীর ছেলে। 

পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বজলে রেজবী আল হাসান মুঞ্জিল এতথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মিঠুন কৃষি কাজ করতেন।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাব্বির আহমেদ জানান, মিঠুন চরে মোটরসাইকেলের রাইডার ছিলেন। ভারতীয় সীমান্ত থেকে প্রায় ২০০ গজ বাংলাদেশের ভেতরে তার মৃতদেহ পড়ে ছিল। তাকে কে বা কারা গুলি করেছে তা তদন্তের আগে বলা যাচ্ছে না।

রাজশাহীর দামকুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে বিএসএফের গুলিতে মিঠুন আলী মারা গেছেন। সীমান্ত অতিক্রম করার সময় মিঠুনকে গুলি করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আরো বিস্তারিত জানা যাবে।