ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনসংক্রান্ত একটি ভুয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ক্যাম্পাসে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। শনিবার মধ্য রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্যাডে সভাপতি ও সম্পাদকের স্বাক্ষর করা এই বিজ্ঞপ্তি দেখা যায়। পরে বিজ্ঞপ্তিটি ভুয়া বলে নিশ্চিত করে ইবির দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতারা।

বিজ্ঞপ্তিতে বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত করে ক্যাম্পাস ছাত্রলীগের পাঁচ নেতার নামে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনের বিষয় উল্লেখ করা হয়। এতে পদপ্রত্যাশী নেতা তন্ময় শাহ টনিকে আহ্বায়ক, ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত, নাসিম আহমেদ জয়, অনিক হাসান ও বিপুল হোসেন খানকে যুগ্ম আহ্বায়ক লিখতে দেখা যায়। এ ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা। এ নিয়ে আরাফাত, অনিক ও বিপুল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, 'ঘটনাটি আমাদের জন্য খুবই বিব্রতকর। এর সুষ্ঠু তদন্ত করে বিচার দাবি করছি। এ ঘটনায় আমরা থানায় জিডি করেছি।'

ইবি শাখার তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সমাজসেবা সম্পাদক শেখ স্বাধীন শাহেদ বলেন, 'এই কাজটি যারা করেছে, তারা দুই ধরনের ক্রাইম করেছে। একটি স্বাক্ষর জালিয়াতি এবং অন্যটি ভুল তথ্য প্রচার।