ঢাকায় অন্য এক অঞ্জন দত্ত

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

সেলসম্যানকে নিয়ে নাটক- কথাটি শুনলেই নাট্যপ্রেমীদের মনে পড়তে বাধ্য যুক্তরাষ্ট্রের নাট্যকার আর্থার মিলারের 'ডেথ অব দ্য সেলসম্যান' নাটকের কথা। ১৯৪৯ সালে মিলার নাটকটি লেখার পর থেকে বহুবার বহু আঙ্গিকে সেটি মঞ্চস্থ হয়েছে। সেই নাটকই নবরূপায়ণ করেছেন ওপার বাংলার প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী অঞ্জন দত্ত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার নাট্যপ্রেমীদের সামনে সেই নাটক নিয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। গান গাইতে বহুবার এলেও অভিনয় নিয়ে এবারই প্রথম বাংলাদেশ সফরে তিনি। অঞ্জন দত্তের অনবদ্য অভিনয় আর ভক্তদের মুগ্ধতায় ভরপুর ছিল রাজধানীর বেইলি রোডের মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহীম মিলনায়তন। তবে টিকিটের উচ্চমূল্য নিয়ে ছিল দর্শকদের ক্ষোভ। অবশেষে ক্ষোভ কাটিয়েই অঞ্জন দত্তের প্রতি ভালোবাসায় কেটে গেল তাদের গত সন্ধ্যা। 

মহিলা সমিতিতে পরপর দু'বার মঞ্চস্থ হয় অঞ্জন দত্ত প্রোডাকশনের 'সেলসম্যানের সংসার'। নাটকটির নবরূপায়ণ ও নির্দেশনা দিয়েছেন অঞ্জন দত্ত নিজেই। ঢাকায় এ নাট্য মঞ্চায়নের আয়োজন করে ছাপাখানার ভূত।

নাটকের মুখ্য চরিত্র সেলসম্যান উইলি লোম্যানের ভূমিকায় অসাধারণ ও দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন অঞ্জন দত্ত। উইলির জীবনের অসহায়তা, ক্ষোভ, রাগ, ভালোবাসা, উচ্চাকাঙ্ক্ষা সর্বোপরি ব্যর্থতা দারুণভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি। অভিনয়ের সঙ্গে ফ্রাঙ্ক সিনাওয়াত্রার 'অ্যান্ড নাও দ্য অ্যান্ড ইস নিয়ার' গানটির প্রাসঙ্গিক ব্যবহার নাটকটিকে যেন একটা অন্য মাত্রা দিয়েছে। নাটকে অঞ্জন দত্তের পাশাপাশি আরও অভিনয় করেছেন সুপ্রভাত দাশ, সুদীপা বোস, অনির্বাণ চক্রবর্তী, উষ্ণক বসু, বর্ণা রাহা, অভিরূপ চট্টোপাধ্যায় ও সুহর্ত্র মুখোপাধ্যায়।

অনুষ্ঠানে নাট্যমঞ্চায়নের পাশাপাশি ছাপাখানার ভূত থেকে প্রকাশিত সাজ্জাদ হুসাইনের লেখা 'নাট্যাঞ্জন' বইটির মোড়ক উন্মোচিত হয়। বইটির প্রকাশক ফারিহা রুবাইয়াৎ খান বলেন, বইটিতে অঞ্জন দত্ত নিজের নাট্যজীবনের কথা বলেছেন। বইটির বিষয়ে অঞ্জন দত্ত বলেন, বইটি প্রত্যেকেরই ভালো লাগার কথা। এখানে আমি অনেক কথাই বলেছি, যা আগে কখনও বলিনি। 

টিকিটের দাম নিয়ে ক্ষোভ :নাটক দেখে সন্তুষ্ট হলেও টিকিটের দাম নিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন নাট্যপ্রেমীরা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস বলেন, নাটক প্রায়ই দেখি; কিন্তু একটি নাটকের টিকিট কীভাবে দুই হাজার টাকা

হতে পারে? কলকাতার নন্দনে টিকিটের দাম দেড়শ' রুপি রাখা হলে আন্দোলন করে সেটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। যে অঞ্জন দত্ত নিজের চিন্তায়, গানে প্রান্তিক মানুষের কথা বলেন, তার নাটকের দাম এত বেশি রাখা অনুচিত। এতে তো সাধারণ মানুষ নাটকটি দেখা থেকে বঞ্চিত হলো। 

নাটক দেখতে আসা আরেক দর্শক নাদিয়া শারমিন বললেন, অঞ্জন দত্তের নাটক বলেই চড়া মূল্যে টিকিট কেটেছি। এখন শুনি দুই হাজারের টিকিটের সঙ্গে এক হাজার টাকা দামের একটি বই দেওয়া হবে। আমি তো বইটি চাইনি।

এ বিষয়ে অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা ও বইয়ের লেখক সাজ্জাদ হুসাইন বলেন, টিকিটের দাম কিছু বেশি। কিন্তু কোনো স্পন্সর ছাড়া নাটকটি হচ্ছে। কলকাতা থেকে আট-দশজনের ঢাকায় আসা, হোটেল ভাড়া, হলভাড়া, বইয়ের গবেষণার খরচ মিলিয়ে এ দাম রাখা হয়েছে। 

বিষয় : সেলসম্যান অঞ্জন দত্ত বিনোদন