'ডেঞ্জারজোন'-এ কয়েক ঘণ্টা

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ১৮ জুলাই ২০১৯      

অনিন্দ্য মামুন

‘ডেঞ্জার জোন’ ছবির একটি দৃশ্য

বোটানিক্যাল গার্ডেনে প্রবেশ করতেই প্রশান্ত হয়ে উঠল মন। সবুজের এলাকা। সুনসান নীরবতা। শহরের কোনো কোলাহলই স্পর্শ করছে না এতে। মনে হলো, কোনো সবুজে ঘেরা গ্রামে এসে পড়লাম। নির্মল হাওয়া আর পাখির কিচিরমিচির শব্দে মুহূর্তেই উদ্বেলিত হয়ে উঠল মন। এই বোটানিক্যাল গার্ডেনেই সায়েন্স ফিকশন ছবি 'ডেঞ্জার জোন'-এর শুটিং হচ্ছিল। প্রায় দুই বছর বিরতির পর ছবিটির শুটিং শুরু করেছেন বাপ্পী ও জলি।

শুটিং শুরুর পরও পড়েছে বিপাক। সেটা বৃষ্টির। এই বৃষ্টির জন্যই ডেঞ্জার জোনের শুটিং শেষ হয়েও হচ্ছে না। মাথার ওপর তখন খেলা করছে মেঘের দল। মনে হচ্ছে, একটু পরই নেমে পড়বে বৃষ্টি। চারদিকের বাতাসও ঠাণ্ডা। বাপ্পীর সঙ্গে কথা বলার সময় চলে এলেন পরিচালক বেলাল সানি।

কাছে আসতেই আক্ষেপ নিয়ে বললেন, 'ছবিটির কাজ প্রায় শেষ করেছি। আর মাত্র চার দিন টানা শুটিং করতে পারলেই সিকোয়েন্সের কাজ শেষ হতো। আজও হয়তো আর শুটিং করা হবে না। বৃষ্টি কমার অপেক্ষায় থাকতে হবে।' কথা বলতে বলতেই নেমে এলো বৃষ্টি। শুটিং করা হচ্ছে না আর। তাই পরিচালকের সঙ্গে আড্ডাতেই সময় কাটানো।