শিল্পে বাণিজ্য ঢুকে পড়েছে: শম্পা রেজা

প্রকাশ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯       প্রিন্ট সংস্করণ     

বিনোদন প্রতিবেদক

শম্পা রেজা। অভিনেত্রী, উপস্থাপক ও কণ্ঠশিল্পী। দীপ্ত টিভিতে আজ রাতে প্রচার হবে তার অভিনীত নাটক 'ভালোবাসার আলো আঁধার'। নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-


অনেক দিন ধরে 'ভালোবাসার আলো আঁধার' নাটকটি প্রচার হচ্ছে। এতে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

এ সময়ের অন্যান্য নাটকের গল্পের সঙ্গে তুলনা করলে এ নাটকটিতে কিছুটা হলেও ভিন্নতার ছাপ খুঁজে পাওয়া যাবে। ঘৃণা ও ভালোবাসার ভেতরে এক মায়ের জয়-পরাজয়ের গল্প নিয়ে এটি নির্মিত হয়েছে।নাটকে আমাকে দেখা যাচ্ছে এক ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর চরিত্রে। এটি নিয়ে বেশ ইতিবাচক আলোচনাই শুনেছি। ফাহমিদুর রহমানের চিত্রনাট্য ও নুসরাত জাহানের সংলাপে রচিত এই ধারাবাহিকটি পরিচালনায় গোলাম সোহরাব দোদুল বেশ মুনশিয়ানার পরিচয় দিয়েছেন। সব মিলিয়ে নাটকটির দর্শক প্রতিক্রিয়া ভালো বলতেই হয়।


অভিনয় একেবারে কমিয়ে দিয়েছেন। এর কারণ কী?

যে কাজটি আমি উপভোগ করতে না পারব সে কাজটি করা হয়ে ওঠে না। অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত থাকার মতো কয়টি নাটক নির্মিত হয়। নাটক এখন এজেন্সিনির্ভর হয়ে পড়েছে। শিল্পে বাণিজ্য ঢুকে পড়েছে। ফরমায়েশি কাজ আর ভালো লাগে না। এ কারণেই অভিনয় থেকে একটু দূরে আছি। ফলে দর্শক আমাকে শুধু একটিমাত্র ধারাবাহিকে দেখতে পাচ্ছেন।

উপস্থাপনার কী খবর?

'আমার গান' অনুষ্ঠানটিই এখন নিয়মিত করছি। মাইটিভিতে এটি প্রচার হচ্ছে। নিজেও সঙ্গীতের মানুষ। সে কারণে গানের মানুষদের সঙ্গে মিশতে, তাদের সম্পর্কে জানতে আমার ভালো লাগে। অনুষ্ঠানে আমি এই সময়ের শিল্পীদের নিমন্ত্রণ করি। এই সময়ের গান ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে এতে আড্ডা হয়।


'পদ্মপুরাণ' ছবির কাজ প্রায় শেষ। ছবিটি নিয়ে আপনি কেমন আশাবাদী?

শুনেছি ছবিটি শিগগিরই মুক্তি পাবে। যখনই মুক্তি পাক, ছবিটি দর্শকের মনে দাগ কাটবে বলেই আমার বিশ্বাস। কারণ ছবির গল্প, চরিত্র, নির্মাণ- প্রতিটি ধাপে ভিন্নতার ছাপ তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। এখানে আমি অভিনয় করেছি গুরুমার চরিত্রে।


অবসর কাটে কী করে?

নাতনি স্মরণীয়াকে নিয়ে বাসায় বেশ আনন্দঘন সময় কাটে। নাতনিই আমার কাছের বান্ধবী। পরিবারে যে মানুষ সুখী সে-ই প্রকৃত সুখী মানুষ। পরিবার ঠিক রেখে অন্যসব কাজ করতে পছন্দ করি।