বলিউডের সর্বোচ্চ আয় করা ১০ সিনেমা

প্রকাশ: ০৭ নভেম্বর ২০১৯     আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দর্শকদের জন্য সেলুলয়েডের ফিতায় ঐতিহাসিক ঘটনা তুলে ধরেছেন বলিউডের পরিচালকরা। এসব সিনেমা পরিচালকদের নাম-যশ-খ্যাতির পাশাপাশি বাণিজ্যিক সফলতাও এনে দিয়েছে।

ব্যবসায়িক সফল হওয়া এমন কয়েকটি সিনেমার তালিকা প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।


পদ্মাবত

পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালীর ‘পদ্মাবত’ দীপিকা পাড়ুকোন, রণবীর সিং এবং শহিদ কাপুর অভিনীত সবচেয়ে বেশি আয় করা সিনেমার একটি। এই সিনেমা রাজপুতদের গৌরব এবং রানি পদ্মাবতীর (দীপিকা) গল্প বলা হয়েছে, যেখানে তিনি আলাউদ্দিন খলজির কাছে আত্মসমর্পণের চেয়ে নিজের জীবন উৎসর্গ করা শ্রেয় মনে করেছেন। শহিদ কাপুর মহারাওয়াল রতন সিংয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এই সিনেমা নিয়ে বহু বিতর্ক হয়। তা সত্ত্বেও বক্স অফিসে সাফল্য অর্জন করে। ২৮২ দশমিক ২৮ কোটি টাকা বক্স অফিসে আয় করে এবং দর্শক-সমালোচকদের কাছে প্রশংসা অর্জন করে।


বাজিরাও মাস্তানি 

সঞ্জয় লীলা বানশালীর আরেকটি বড় কাজ হচ্ছে ‘বাজিরাও মাস্তানি’। এই সিনেমায় রণবীর সিং, দীপিকা পাড়ুকোন এবং প্রিয়াঙ্কা চোপড়া গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করে প্রেমের মহাকাব্য রচনা করেন। মুক্তির আগে সিনেমাটি নিয়ে বহু সমালোচনা করা হলেও মুক্তির পর সকলে প্রশংসা করেন। এই সিনেমায় পেশওয়ার বাজিরাও এবং মাস্তানির প্রেম নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। ছবিটি ১৮৩ দশমিক ৭৫ কোটি টাকা আয় করে।


কেশরী

অনুরাগ সিং পরিচালিত যুদ্ধ ভিত্তিক সিনেমা কেশরীতে অক্ষয় কুমার গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৮৯৭ সালে ১০ হাজার আফগান সেনার সামনে রুখে দাঁড়ায় ২১ জন শিখ জওয়ান। সেই ঐতিহাসিক ঘটনা উঠে আসে এই সিনেমায়। ২০১৯ সালের ২১ মার্চ ফিল্মটি মুক্তি পেয়ে ১৫১ দশমিক ৮৭ কোটি টাকা আয় করে। অক্ষয় কুমার ব্রিটিশ ইন্ডিয়ান আর্মির ৩৬ শিখ রেজিমেন্টে হাবিলদার ঈশা সিংয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন।


মনিকর্নিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি

কঙ্গনা রানাওয়াত অভিনীত মনিকর্নিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি একটি ঐতিহাসিক সিনেমা। এটি তার পরিচালিত প্রথম সিনেমা। ভারতীয় নারী হয়ে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন রানি লক্ষীবাই। ২০১৯ সালের ২৫ জানুয়ারি ছবিটি মুক্তি পায়। এই ছবির আয় হয় ৯০ দশমিক ৮১ কোটি।


কলঙ্ক

অভিষেক বর্মন পরিচালিত কলঙ্ক সিনেমায় অভিনয় করেন বরুণ ধাওয়ান, আলিয়া ভাট, সোনাক্ষী সিনহা, আদিত্য রায় কাপুর, মাধুরী দীক্ষিত এবং সঞ্জয় দত্ত। প্রযোজক করণ জোহরের উচ্চাবিলাসী একটি স্বপ্ন এই সিনেমা। এই সিনেমার মূল উপজ্জীব্য প্রেম এবং প্রতিশোধ দেখানো হয়। ২০১৯ সালের ১৭ এপ্রিল সিনেমাটি মুক্তি পেয়ে এ পর্যন্ত আয় করে ৮০ দশমিক ৩ কোটি টাকা।


যোধা আকবর

আশুতোষ গোয়ারিকর পরিচালিত হৃত্বিক রোশন এবং ঐশ্বরিয়া রাই অভিনীত সিনেমা ‘যোধা আকবর’। এই সিনেমায় মুঘল সম্রাট আকবর এবং রানি যোধা বাইয়ের প্রেম কাহিনি উঠে এসেছে। সিনেমাটি ২০০৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পায়। সিনেমাটি দর্শক-সমালোচকদের কাছে প্রশংসা কুড়িয়ে ৫৬ দশমিক ৪ কোটি টাকা আয় করে।


দেবদাস

শরৎ চন্দ্র চট্রোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত সিনেমা ‘দেবদাস’। সঞ্জয় লীলা বানশালী পরিচালিত এই সিনেমায় নিজের সর্বোচ্চ শ্রম দিয়ে অভিনয় করেন শাহরুখ খান। এই সিনেমায় আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। মাধুরী চন্দ্রমুখী চরিত্রে বারবনিতা রূপে অভিনয় করেন। সিনেমাটি ২০০২ সালে মুক্তি পায় এবং ৪১ দশমিক ৬৫ কোটি টাকা আয় করে। 


লগন

আশুতোষ গোয়ারিকর পরিচালিত বলিউডের সেরা ছবির একটি হচ্ছে ‘লগন’। এই সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন আমির খান। সিনেমায় গ্রামের এবং ইংলিশ ক্রিকেটারদের দ্বন্দ্ব নিয়ে ঘটনা এগিয়ে যায়। হিন্দি ছাড়াও বিদেশি ভাষায় এই সিনেমা মুক্তি পায়। ২০০১ সালের ১৫ জুন সিনেমাটি মুক্তি পায় এবং বাণিজ্যিক সফলতা অর্জন করেন। এই সিনেমাটি বক্স অফিসে ৩৪ দশমিক ৩০ কোটি আয় করে।


লুটেরা 

বিক্রম আদিত্য মোতওয়ানির এই সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন রণবীর সিং এবং সোনাক্ষী সিনহা। ২০১৩ সালের ৫ জানুয়ারি সিনেমাটি মুক্তি পায়। এটি বক্স অফিসে আয় করে ২৮ দশমিক ৮৬ কোটি।


মঙ্গল পান্ডে: দ্য রাইজিং

কেতন মেহতা পরিচালিত মঙ্গল পান্ডে: দ্য রাইজিং সিনেমায় মঙ্গল পান্ডের চরিত্রে অভিনয় করেন বলিউডের সুপারস্টার আমির খান। সিনেমাটি ১৮৫৭ সালের ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে ভারতীয় সেনাদের বিদ্রোহ নিয়ে নির্মিত হয়েছে। ২০০৫ সালের ১২ আগস্ট মুক্তিপ্রাপ্ত এই সিনেমা ২৭ দশমিক ৮৬ কোটি টাকা আয় করে।

এছাড়া পরিচালক আশুতোষ গোয়ারিকরের আসন্ন সিনেমা ‘পানিপথ’। অর্জুন কাপুর, কৃতি শ্যানন এবং সঞ্জয় দত্ত এই সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

এই সিনেমায় পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধের ঐতিহাসিক ঘটনা তুলে ধরা হয়েছে। সম্প্রতি সিনেমার ট্রেলার প্রকাশিত হয়েছে। এই সিনেমাও বক্স অফিসে সাফল্য অর্জন করবে বলে ফিল্ম সমালোচকরা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।