'এফডিসিতে শুটিং নেই। ভুতুড়ে হয়ে আছে এফডিসি'- এমন শিরোনামে গত বছর খবর প্রকাশ হয়েছে অনেক। তবে নতুন বছরে এমন খবর দিয়ে শুরু হয়নি এফডিসির যাত্রা। প্রেক্ষাগৃহে নতুন সিনেমা না থাকলেও নতুন বছরের শুরু থেকেই প্রাণচঞ্চল এফডিসি। এতদিন যেখানে কেবল সমিতিগুলো ও ক্যান্টিন চত্বরে আনাগোনা দেখা গেছে, সেখানে মানুষের আনাগোনা দেখা গেল শুটিং ফ্লোরগুলোতেও। বেশ কয়েকটি ফ্লোর থেকে শোনা গেল, 'লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশন' বলার আওয়াজ। তাও আবার বিজ্ঞাপন বা নাটকের নয়। সিনেমার। শুটিংয়ের এমন ব্যস্ত এফডিসিই তো দেখতে চান সবাই। যেখানে কোনো দলাদলি নয়, কোনো রাজনীতি নয়, কেবল থাকবে সিনেমার শুটিং, সিনেমার অভিনয়শিল্পীদের মুখরিত আড্ডা। আগেই জানা ছিল এফডিসিতে দুই ছবির শুটিং চলছে। একটি শাকিব-বুবলীর বীর অন্যটি নিরব-বুবলীর ক্যাসিনো। মূল গেট দিয়ে প্রবেশের পর জানা গেল একটি বিজ্ঞাপনেরও শুটিং হচ্ছে। এফডিসির ৩ নম্বর ফ্লোরে শাকিব খান। 

মুখভর্তি দাড়ি, বোতাম খোলা শার্ট, ছেঁড়া প্যান্ট ও গলায় চাদর তার। এমন গেটাপে শট দিচ্ছেন তিনি। এ যেন অন্য এক শাকিব। এত বড়বড় দাড়িতে আগে কোনো ছবিতে অভিনয়ও করেননি। প্রথম শটই ওকে বলেন পরিচালক কাজী হায়াৎ। শট শেষ করেই চেয়ারে এসে বসেন নায়ক। দৌড়ে যান শাকিব খানের মেকাপম্যান সবুজ। পাশে যেতেই শাকিব খান বললেন, 'গানের শুটিং করছি। আইটেম গান। পাসওয়ার্ড ছবির গানের মতো এ গানটিও দর্শকদের ভালো লাগবে।' শাকিব খানের কথায় সহমত জানিয়ে জানতে চাই- দাড়িতে কেমন লাগছে। প্রথমবার তো রাখলেন। হেসে দিলেন নায়ক। জানালেন, আর কেমন লাগবে। পুরো ছবিই তো প্রায় একই পোশাকে শেষ করতে হলো। কেমন লাগবে ভাবুন।' বোঝা গেল বীরের জন্য বেশ পরিশ্রম করতে হয়েছে এ নায়কের। একই দিন চলছিল ক্যাসিনো ছবির শুটিং। সেটা জসিম ফ্লোরে। এই ফ্লোরের ভেতরে ঢুকতেই কপালে চোখ। এলাহি কাণ্ড। ফ্লোরজুড়ে ক্যাসিনো সাজানো হয়েছে। অনেকগুলো জুয়ার টেবিল।

আছে বার। সেটজুড়ে হৈচৈ। কারও বোঝার উপায় নেই, এটি সিনেমার সেট। টেবিলে টেবিলে চলছে খেলা। সেটের ফটকে পাহারা। ঢোকার আগেই তল্লাশি। সেটের মধ্যে কোনো ছবি তোলা যাবে না। মনিটরের সামনে বসা ছবির পরিচালক সৈকত নাসির। বললেন, 'সেট বা চরিত্রগুলোর লুক প্রকাশ করছি না। আগেই যদি সবাই দেখে ফেলে, তাহলে ছবির চমক থাকবে না। আমাদের দেশের বাইরে এই রীতি চালু আছে।' কথায় কথায় পরিচালক আরও জানালেন, ছবির শুটিং শেষ হতে আর দু-একদিন লাগবে। হয়তো এই প্রতিবেদন লিখতে লিখতে ক্যাসিনোর শুটিংও শেষ হয়ে যাবে। ছবিটির মাধ্যমে প্রথমবার জুটি হয়েছেন নিরব-বুবলী। তবে ক্যাসিনোর সেটে আজ বুবলী নেই। তিনি আছেন বীরের সেটে। সেখানে আইটেম গানের পারফর্ম করছেন তিনি। কোনালের কণ্ঠে গাওয়া আইটেম গানটিও চমৎকার শোনাল। পাসওয়ার্ড ছবির আগুন লাগাইলোর পর এ গানটি এ বছরের আরেকটি হিট আইটেম গান হতে যাচ্ছে বলেও বলাবলি হচ্ছে দুই শুটিং ফ্লোরেই।