ফজলুর রহমান বাবু। অভিনেতা ও মডেল। বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক 'ভদ্রপাড়া'। এ নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে-

'ভদ্রপাড়া' নাটকের 'আছালত' চরিত্রটি নিয়ে দর্শকের প্রতিক্রিয়া কী?

'আছালত' চরিত্রটি একটু অন্যরকম। গ্রামের একজন সৎ চৌকিদার সে। গ্রামটি চোর-বাটপারে ভরা। এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে তার আন্তরিকতার কমতি নেই। এ নিয়ে গ্রামের প্রভাবশালী মণ্ডলের সঙ্গে আছালতের ঠান্ডা লড়াই চলে। গল্প, চরিত্র সব মিলিয়ে নাটকটি বেশ মজার- এমন কথা শোনা গেছে অনেক দর্শকের কাছে। নির্মাতা সকাল আহমেদের নির্মাণ দারুণ ছিল। এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দর্শক প্রতিক্রিয়া বেশি পাওয়া যায়। সেখান থেকেও সাড়া পাচ্ছি।

ভালোবাসা দিবসের জন্য কোনো কাজ করেছেন?

হ্যাঁ, হৈচৈয়ের ভালোবাসা দিবসের আয়োজন 'পাঁচফোড়ন'-এর জন্য 'ডোনার' নামের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি। এটি পরিচালনা করেছেন নুরুল আলম আতিক। ভালোবাসা দিবসের কনটেন্ট যেমন হয়, এটি তেমনই। আলাদা কিছু নয়। ছেলে-মেয়ে দু'জন দু'জনকে ভালোবাসে। এই তো...। আমি অভিনয় করেছি অর্চিতা স্পর্শিয়ার বাবার চরিত্রে। এ ছাড়া এই দিবসের আরও কয়েকটি নাটকে আমাকে দেখা যাবে।

চলচ্চিত্রের কাজ নিয়ে ব্যস্ততা কেমন?

বর্তমানে নাটকের চেয়ে সিনেমায় বেশি ব্যস্ত। কিছুদিন আগে রহমান রাসেলের পরিচালনায় 'নন্দিনী', নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের 'জ্যাম', মীর সাব্বিরের 'রাত জাগা ফুল' ছবিতে কাজ করেছি। এর শুটিং হয়েছে উত্তরায়। এর আগে 'পাপপুণ্য' ছবির কাজ শেষ হয়েছে। গিয়াসউদ্দিন সেলিম পরিচালিত এ ছবিতে আমাকে দেখা যাবে একজন পুলিশ অফিসারের চরিত্রে। গল্পও অসাধারণ, যা দর্শকদের ভালো লাগবে। এ ছাড়া শিশু একাডেমির পৃষ্ঠপোষকতায় একটি সিনেমায় কাজ করব শিগগিরই।

টিভি নাটকের বর্তমান এ সময়কে কেমন মনে হয়?

আমাদের মিডিয়ায় একজন যা করেন, অন্যরা তা অনুকরণ করেন। এ থেকে বেরিয়ে এসে মৌলিক কিছু করতে হবে। নাটকে নতুনত্ব আনতে হবে। দর্শক কোনোটা গ্রহণ করবেন, আবার কোনোটা করবেন না। আমাদের চেষ্টা করে দেখতে দোষ কী? নাটকের মান কমে যাচ্ছে। স্ক্রিপ্ট রাইটার, নির্মাতারা বাজেট সংকটের কারণে টেলিভিশন নাটক করছেন না। তারা সিনেমা কিংবা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন। প্রযুক্তির কল্যাণে মিডিয়ায় অনলাইন নির্ভরতা বেড়েছে। বিভিন্ন অ্যাপ বের হয়েছে। তাই টেলিভিশন নির্মাতারা এখন নানা মাধ্যমে কাজ করছেন।

সব নাটকে অভিনয় করে কী আপনি সন্তুষ্ট?

অনেক সময় অনুরোধ বা সম্পর্কের খাতিরেও করতে হয়। তবে সব কাজে তুষ্ট নই। একজন অভিনয়শিল্পীর সব সময় ভালো চরিত্রের প্রতি ক্ষুধা থাকে। তাই আমি প্রতিনিয়ত নিজের অভিনীত চরিত্র নিয়ে ভাবি। নতুন চরিত্র দেখলেই মনে হয়, যদি ওই চরিত্রের মধ্যে বিরাজ করতে পারতাম! স্ক্রিপ্ট রাইটার চরিত্রের একটি রূপ দিয়ে যান। তার বাইরে কী আছে, তা নিয়েও ভাবি।

বিষয় : ফজলুর রহমান বাবু ভদ্রপাড়া

মন্তব্য করুন