ঈশিতার দিনরাত্রি

প্রকাশ: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

সৌম্য প্রীতম

ঈশিতা

ঈশিতা

অভিনয় দিয়ে অনেক দর্শককে মন্ত্রমুগ্ধ করে রেখেছেন অভিনেত্রী ঈশিতা। সব সময় মুখে হাসি লেগে থাকা মানুষটি কিন্তু শুধু অভিনয়ের মধ্যে নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেননি। কারণ ছোট্ট বয়সে নাচের মাধ্যমে তার শিল্পভুবনে পদার্পণ ঘটে। তারপর নতুন কুঁড়ির মাধ্যমে নিজের প্রতিভারও জানান দেন। কিন্তু ওই যে নির্দিষ্ট গণ্ডির মধ্যে আবদ্ধ থাকতে একদমই পছন্দ করেন না। তাই ইদানীং সুরের সমুদ্রে ভাসতেও তাকে দেখা যায়।

যদিও একটা সময় নিয়মিত গান করতেন তিনি। পরবর্তী সময় অভিনয়ের ব্যস্ততায় গান প্রকাশ থেকে দূরে সরে যান। তবে গেল বছর একটি গানের মিউজিক ভিডিওর মাধ্যমে প্রায় পাঁচ বছর পর দর্শক-শ্রোতার সামনে আসেন তিনি। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর গানের ভুবনে প্রত্যাবর্তনের সময় তিনি নন্দনের মুখোমুখি হয়েছিলেন। বলছিলেন নতুন কোনো গান মনে ধরলে হয়তো সামনে আরও কিছু গান প্রকাশ করতে পারি।

হ্যাঁ, তিনি সেই ধারাবাহিকতায় গত বছরের শেষের দিকে নতুন একটি গানে কণ্ঠ দিলেন। তবে একা নয়, সঙ্গে ছেলে যাভীর দৌলাকে নিয়ে কালজয়ী গান 'আবার এলো যে সন্ধ্যা' নতুন করে গেয়েছেন। এটি প্রকাশ পেয়েছে গত ২১ জানুয়ারি। তবে মৌলিক গান বেছে না নিয়ে কেন তিনি নতুন সংগীতায়োজনে গানটি প্রকাশ করলেন, সে প্রশ্নের মুখোমুখি হলেন তিনি। বলেন, 'এ গানটি আমাদের দেশের মানুষের মনে অন্য রকম স্থান নিয়ে আছে। লাকী আখন্দের সুর করা গানটি প্রায়ই আনমনে গুন গুন করে গাই। আমার ছেলে যাভীরেরও গানটি ভীষণ প্রিয়। সে চার বছর বয়স থেকেই গান শিখছে। ওর শখ ছিল আমার সঙ্গে একটি গান করার। তাই দু'জনে মিলে প্রিয় গানটি গেছে নিলাম। মা-ছেলে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছি, ভিডিওচিত্রেও অংশ নিয়েছি। সব মিলিয়ে দারুণ অভিজ্ঞতা হয়েছে। নিজের ছেলে বলে বলছি না, ও দারুণ গেয়েছে।'

ঈশিতার এমন কথায় বোঝা গেল মা-ছেলে মিলে সংগীতের সঙ্গে জমিয়ে সন্ধি স্থাপন করেছেন। তবে কি ছেলের সঙ্গে নতুন আরও গান প্রকাশের ইচ্ছা আছে ঈশিতার? এ প্রশ্নের উত্তরে ঈশিতা জানান, আপাতত পরিকল্পনা নেই। যদি কোনো গান ভালো লেগে যায়, আবার গাইতেও পারি। নতুন গানে কণ্ঠ দিলেও ঈশিতা আগের মতো আর নিয়মিত নন। তবে এ নিয়ে এতটা হতাশ নন তিনি। জানান, 'অভিনয় তো করছি। গত বছর একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও নাটকে কাজ করেছি। তবে নিয়মিত অভিনয়ের ইচ্ছা নেই। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত আছি। তা ছাড়া পরিবারকেও সময় দিতে হয়। তাই ভালো প্রজেক্ট ছাড়া অভিনয়ের ইচ্ছা নেই। তবে মানসম্মত কাজ পেলে হয়তো আগামীকালই অভিনয়ে আমাকে দেখা যাবে।


ঈশিতা নিজে যেহেতু প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আপন প্রতিভার জানান দিয়েছিলেন, তাই বর্তমানে রিয়েলিটি শো থেকে উঠে আসা শিল্পীদের নিয়েও ভীষণ আশাবাদী। তিনি বলেন, 'নতুনরা এখন আরও বেশি পরিপকস্ফ। তারা এখন শুধু দেশের কাজ নয়, বহির্বিশ্বের মিডিয়ার মানসম্মত নানা অনুষ্ঠান দেখে নিজেদের সমৃদ্ধ করছে। ব্যক্তিজীবনে মানুষকে বিশ্বাস করতে ভালোবাসেন ঈশিতা। তাই তো জ্যোতির্ময় রূপ-লাবণ্যের দ্যুতি ছড়িয়েও তিনি অহমিকার স্রোতে ভাসতে চান না।