আমি সিনেমার জন্যই নিজেকে তৈরি করছি: সালওয়া

প্রকাশ: ০২ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ০২ এপ্রিল ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

এমদাদুল হক মিলটন

'কবরী ম্যামের মতো একজন শিল্পীর মুখোমুখি হতে হবে, এমনকি তার ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পাব, তাও ভাবিনি। কিন্তু তিনি আপন করে নিলেন। শিখিয়ে দিলেন, এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া।' অভিনেত্রী কবরীর পরিচালনায় 'এই তুমি সেই তুমি' ছবিতে অভিনয় প্রসঙ্গ এভাবেই কথাগুলো বলেন 'মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮' প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ নিশাত সালওয়া।

এরই মধ্যে দু'দিন ছবিটির দৃশ্যধারণ হয়েছে। প্রথম থেকেই শুটিং সেটে উপস্থিত থাকলেও ক্যামেরার সামনে এখনও দাঁড়াননি নিশাত সালওয়া। করোনার প্রাদুর্ভাবে বর্তমানে সিনেমার শুটিং বন্ধ রয়েছে।

এই ছবির সঙ্গে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'কবরী ম্যাম কোনো এক সূত্র থেকে আমার ছবি দেখেছিলেন। পরে তিনি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। প্রথম দেখাতেই পছন্দ করলেন। এরপর বেশ কয়েক দিন গ্রুমিং হয়েছে। এ সময় অভিনয় শিখিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি তিনি নিজের জীবনের কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ারও করেছেন। তার পাশে বসে অভিনয় শিখে নেওয়া আমার মতো একজন নবীন শিল্পীর জন্য ভাগ্যের ব্যাপার বলে আমি মনে করি।'

'মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮' প্রতিযোগিতায় যে ক'জন মেধার স্বাক্ষর রেখেছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম নিশাত সালওয়া। যখন অনেক প্রতিযোগী ভুল উত্তরে বিব্রত হয়েছিলেন বিচারকরা, তখনও নিশাত ছিলেন আপন আলোয় উজ্জ্বল। প্রতিযোগিতা থেকে বের হওয়ার পর মিউজিক ভিডিও ও বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছেন তিনি। সিনেমায় তার প্রথম কাজ মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের পরিচালনায় 'স্বপ্ন দেখা রাজকন্যা' ছবিতে। এতে তার সহশিল্পী হ্যান্ডসাম দ্য আল্টিমেট ম্যান দ্বিতীয়বারের চ্যাম্পিয়ন এ কে আজাদ।

বিনোদন অঙ্গনে পথচলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন 'শোবিজে কাজ করব কখনোই ভাবিনি। কলেজে পড়ার সময় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের হয়ে কিছু ফটোশুটিং করি। এসব ছবি সামাজিক মাধ্যমে এলে চোখে পড়ে নির্মাতা চন্দন চৌধুরীর। তিনি তাহসান খান ও ইমরানের 'মন কারিগর' গানের মডেল হওয়ার প্রস্তাব দেন।রাজি হয়ে যাই। এরপর এক দিন 'মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ' প্রতিযোগিতার বিজ্ঞাপন দেখে হুট করে সাত-পাঁচ না ভেবে আবেদন করি।'

সালওয়ার এর পরের গল্প সবারই জানা। ৩৫ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে প্রথম রানারআপ হিসেবে বিজয়ের মুকুট পরেন এই নীল নয়না। 'মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ' প্রতিযোগিতা থেকে এসে অনেকেই নাটক ও বিজ্ঞাপনে পুরোদমে কাজ করছেন। কিন্তু আপনাকে এখানে সেভাবে পাওয়া যাচ্ছে না। এর কী কারণ? ক্যারিয়ারে শুরুতে নাটকে অভিনয়ের অনেক অফার পেয়েছি। কিন্তু সবাইকে না করেছি। সিনেমা অনেক বড় ক্যানভাস, মানুষের কাছে পৌঁছানোর বড় মাধ্যম। আমার লক্ষ্য যে অভিনেত্রী হওয়ার। এ জন্য নিজেকে তৈরি করছি। নাচের অনুশীলন, দেশ-বিদেশের সিনেমা দেখছি। বলতে পারি, সিনেমায় জন্য যা দরকার, সবকিছুরই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।'

সিলেটের মেয়ে সালওয়ার বেড়ে ওঠা ঢাকায়। বর্তমানে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক করছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি পড়াশোনায় সময় দিতে হয় তাকে।