এই জন্য পর্দার বাইরেও তিনি সুপারস্টার

প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০২০   

বিনোদন ডেস্ক

শুধু পর্দায় নয়, বাস্তব জীবনেও সুপারস্টার শাহরুখ। এই করোনাকালে কোটি কোটি রুপি দিয়ে সাহায্য করছেন ভারত সরকারকে। অসচ্ছল মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। ডাক্তারদের পিপিই ও করোনা চিকিৎসার জন্য যে সরঞ্জামাদি লাগে সেসব দিচ্ছেন।  

এর আগে  ‘মীর ফাউন্ডেশন’এর তরফে ৫০ হাজার পিপিই  কিট পশ্চিমবঙ্গ আর মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে দেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন।  এর বাইরেও আলাদা করে আরও অর্থ সাহায্যের ব্যবস্থাও করেছেন শাহরুখ, যাতে আগামী দিনগুলিতে বাংলা এবং মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলিতে ভেন্টিলেটরেরও অভাব না হয়।

সে প্রতিশ্রুতিমতো  দিয়েছেন শাহরুখ। গেলো সোমবার মহারাষ্ট্র সরকারের কাছে ২৫ হাজার পিপিই কিট পাঠিয়েছেন শাহরুখ। যার জন্যে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে শাহরুখকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

সোমবার মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপ শাহরুখকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইটে লিখেছিলেন, “২৫ হাজার কিট পাঠানোর জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই শাহরুখ আপনাকে। COVID-19 মোকাবিলায় দিনরাত প্রাণপাত করে খেটে চলা স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষায় আপনার এই মানবিক উদ্যোগ অনস্বীকার্য।” 

পালটা টুইটে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কিং খানও। এই কঠিন লড়াইয়ে যে সবাই একবদ্ধ এবং একজোট হয়ে লড়ছে, সেকথাও টুইটে উল্লেখ করেছেন শাহরুখ।

করোনায় ‍শাহরুখ খানের অবদান

১. প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির করোনা তহবিল: শাহরুখের যৌথ মালিকানাধীন আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের পক্ষ থেকে অঘোষিত অঙ্কের অনুদান।

২. মহারাষ্ট্র মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল: শাহরুখের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট অনুদান দিয়েছে।

৩. স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই): ৫০ হাজার পিপিই কিট সরবরাহে পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে কাজ করবে শাহরুখের কলকাতা নাইট রাইডার্স ও মীর ফাউন্ডেশন।

৪. এক সাথ-দ্য আর্থ ফাউন্ডেশন: এই সংস্থার সঙ্গে মিলে শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশন কমপক্ষে একমাস মুম্বাইয়ের ৫ হাজার ৫০০ পরিবারকে প্রতিদিনের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করবে। এছাড়া দুই হাজার পরিবার ও হাসপাতালের টাটকা খাবার রান্নার জন্য একটি কিচেন স্থাপন করা হবে।

৫. রোটি ফাউন্ডেশন: এই সংস্থার সহযোগিতায় শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশন করোনাভাইরাস সংকটে ক্ষতিগ্রস্ত দিনমজুর ও দুস্থদের খাবার দেবে। কমপক্ষে একমাস প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের জন্য ৩ লাখ খাদ্যসামগ্রী সরবরাহ করা হবে।

৬. ওয়ার্কিং পিপল’স চার্টার: এই সংস্থার সঙ্গে শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশন কমপক্ষে একমাস দিল্লির আড়াই হাজারেরও বেশি দিনমজুরের জন্য মৌলিক চাহিদা ও মুদিপণ্য সরবরাহে কাজ করবে।

৭. এসিডদগ্ধদের জন্য সহায়তা: শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশন ভারতের উত্তর প্রদেশ, দিল্লি, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তরাখণ্ডের শতাধিক অ্যাসিডদগ্ধ নারীকে প্রতি মাসে ভাতা দেবে ও তাদের মৌলিক চাহিদা পূরণ করবে।