আরিফিন শুভ। মডেল ও অভিনেতা। করোনা সচেতনতায় সম্প্রতি 'এসো সবাই' শিরোনামে একটি গানের ভিডিওতে অংশ নিয়েছেন তিনি। এ গান, ঘরবন্দি সময় ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে-

'এসো সবাই' গানে অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?

বলতে পারেন, অন্য রকম অভিজ্ঞতা নিয়েই গানে অংশ নিয়েছি। এতে ৭০ জনের মতো সংগীত, নাটক, চলচ্চিত্র, অনলাইন, নিউজ, রাজনীতি, সমাজসেবা ও করপোরেটের শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিত্ব অংশগ্রহণ করেছেন। করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন পেশার মানুষ যে যার অবস্থান থেকে এগিয়ে এসেছেন। ব্যক্তিগত দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে সম্পূর্ণ জিরো রয়্যালিটি কনসেপ্টে নিজ বাসা থেকে মোবাইলে গানের ভিডিওতে অংশ নিয়েছি। এ উদ্যোগ করোনা সংকট চলাকালীন ও সংকটপরবর্তী সময়ে আর্থিক, শারীরিক ও সামাজিক সহায়তা দিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে। এটা সত্যিই অসাধারণ ব্যাপার।

ঘরবন্দি সময় কেমন কাটছে?

খুব খারাপ একটা সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি; এটি তো বলার অপেক্ষা রাখে না। যেহেতু ঘরে থাকতে হচ্ছে, তাই ঘরে পছন্দের কাজগুলো আমরা করতে পারি। এতে আমাদের মনোবল ঠিক থাকবে। সকালে আর রাতে ছাদে হাঁটি। ছবি দেখি। নেটফ্লিক্সে এরই মধ্যে 'ব্ল্যাক লিস্ট', 'অসুর', 'ফিদা'সহ অনেক ছবি দেখেছি। ফুরসত পেলেই বাসার কাজ করি। পরিবারকে সময় দিই। মেডিটেশন করি। এভাবেই কেটে যাচ্ছে।

করোনায় নতুন উপলব্ধি কী হয়েছে?

সত্যিই পৃথিবীর জন্য চিন্তা হচ্ছে। আমরা বেঁচে থাকাকে মূল্যহীন ভেবেছিলাম। জীবনকে ভালোবাসতে হবে। এখন মনে হচ্ছে, এ দুর্যোগ কেটে গেলে বাঁচার মতো বাঁচব। শুধু নিজের জন্য নয়, অন্যের জন্যও বাঁচব।

এই দুর্যোগে ভক্তদের জন্য আপনার পরামর্শ কী?

সবার কাছে একটাই অনুরোধ- সাবধানে থাকুন। আসুন, কিছুদিন আমরা সরকারের পরামর্শ ও ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগানাইজেশনের পরামর্শ মেনে চলি। আমি বিশ্বাস করি, আমরা এটা ওভারকাম করতে পারব।

হাতে থাকা ছবিগুলোর কী অবস্থা?

'মিশন এক্সট্রিম' ছবির কাজ শেষ। আসছে ঈদে এটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। মনে হয় তা সম্ভব হবে না। আর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে নির্মিতব্য 'বঙ্গবন্ধু' ছবির কাজও পিছিয়েছে করোনার কারণে।