ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর জন্য ছটফট করেছি: টয়া

প্রকাশ: ২৩ জুন ২০২০     আপডেট: ২৩ জুন ২০২০   

বিনোদন প্রতিবেদক

মুমতাহিনা টয়া। মডেল ও অভিনেত্রী। বেশ কিছুদিনের বিরতির পর আবার শুটিংয়ে ফিরেছেন তিনি। এরই মধ্যে অভিনয় করেছেন বেশ কিছু নাটকে। এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য কর্মপরিকল্পনা নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে-

ফেসবুকে শুটিংয়ের বেশ কিছু ছবি প্রকাশ করেছেন। কোন নাটকে কাজ করছেন?

সর্দার রোকনের পরিচালনায় 'বেসামাল' নামের একটি নাটকে অভিনয় করেছি। দু'দিন আগে নাটকটির দৃশ্যধারণ হয়েছে। ওই ছবিগুলোই ফেসবুকে প্রকাশ করেছি। ঈদের জন্য রোমান্টিক-কমেডি ধাঁচের গল্প নিয়ে নাটকটি নির্মাণ করা হয়েছে। এতে সহশিল্পী ছিলেন ইরফান সাজ্জাদ। নাটকটি কোরবানির ঈদের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে।

অনেকদিন পর শুটিংয়ে ফিরলেন। নিশ্চয় ভালো লাগা কাজ করছে?

বন্দি জীবন থেকে মুক্তির স্বাদ কেমন, তা জেনেছি বিরতি ভেঙে অভিনয়ে ফেরার দিন। অনেকদিন পর সহকর্মীদের সঙ্গে দেখা হওয়ায়, কাজেও খুঁজে পেয়েছি বাড়তি আনন্দ। শুটিংয়ের ফাঁকে করোনাকালের অভিজ্ঞতা তাদের সঙ্গে শেয়ার করেছি। করোনাভাইরাসের জন্য লম্বা সময় ঘরবন্দি ছিলাম। সে দিনগুলো কীভাবে যে কেটেছে, তা বলে বোঝানো যাবে না। তাই ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর জন্য ছটফট করেছি। অবশেষে সুযোগ হয়েছে শুটিংয়ে ফেরার। কিন্তু ফিরে আসেতে পেরেছি মানে এই নয়, যে সব বিপদ কেটে গেছে। করোনার প্রকোপ এখনও থামেনি। এজন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং সবরকম নিরাপত্তা নিশ্চিত করে শুটিং করছি।

ফেব্রুয়ারিতে বিয়ে করলেন, কিছুদিন পর করোনার কারণে শুরু হলো লকডাউন। কেমন ছিল ঘরবন্দি সময়ের সংসার?

লকডাউনকে আমাদের মতো দম্পতির জন্য অমঙ্গলের বলা যাবে না। বিয়ের পর প্রথম দিকে একসঙ্গে কমই সময় কাটানো হতো। তখন দু'জনই শুটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। এরপরই লকডাউনের কারণে আমি বাবার বাসায় আসি। কিন্তু পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় বাসা থেকে আর বের হওয়ার সুযোগই পাইনি। আইন কিছুটা শিথিল হওয়ার পর, শাওন বাড়িতে আসে। এখন খুঁনসুটি-আবদার-ভালোবাসায় মধুর সময় কাটছে আমাদের।

টিভি নাটকের বাইরে নতুন কোনো কাজ করছেন?

এরই মধ্যে একটি ব্রান্ডের মডেল হয়ে ফটোশুট করেছি। অভিনয়ের বাইরের কাজ বলতে এটাই। করোনায় ঘরবন্দি থাকার সময় আসলে অভিনয় বাইরে অন্য কিছু নিয়ে ভাবিনি। শুটিংয়ে ফিরে তাই অভিনয়কে প্রাধান্য দিচ্ছি। 'বেসামাল'র কাজ প্রায় শেষ। কাল থেকে [আজ] বিক্রমপুরে শুরু হবে পরিচালক এস কে শুভর একটি নাটকের শুটিং। এরপর একে একে রাকেশ বসু, জামাল মল্লিক, হাবিব শাকিল, অলোক হাসানসহ আরও বেশ কয়েকজন পরিচালকের ঈদ নাটকে অভিনয়ের কথা আছে। এ ছাড়াও তপু খানের 'সময়ের গল্প' নামের একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করছি।

'বেঙ্গলি বিউটি'র পর আর কোনো সিনেমায় আপনাকে দেখা যায়নি, কারণ কী?

এখন নাটকের কাজ নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকতে হয়। তাই অন্য কিছু নিয়ে সেভাবে ভাবা হচ্ছে না। তা ছাড়া সিনেমায় কাজ করতে গেলে অনেক সময় নিতে হয়। রাখতে হয় সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা। 'বেঙ্গলি বিউটি'র পর এখনও সেভাবে কিছু পরিকল্পনা করিনি।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে কোন ধরনের অনুষ্ঠান তুলে ধরতে চান?

অনেক রকম পরিকল্পনা আছে। তবে 'টয়া টিউব' -এ প্রফেশনাল কন্টেন্ট বেশি রাখা হবে। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও নাটকও রাখার ইচ্ছা আছে। সেই সঙ্গে মজার কিছু ঘটনাও এই চ্যানেলে প্রকাশ করতে চাই।