এফডিসিতে চলচ্চিত্র পরিবারের আওতায় থাকা ১৯ সংগঠনের আয়োজিত শোক দিবসের আয়োজনের মঞ্চে হাজির হলেন অভিনেতা মিশা সওদাগর। এ সময় সবার সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলেন তিনি।  

এর আগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির  সভাপতি  মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকে বয়কট করে চলচ্চিত্র পরিবারের আওতায় থাকা ১৯ টি সংগঠন। চলচ্চিত্রের স্বার্থেই তাদের বয়কট করা হয় বলে এর আগে  সংবাদ সম্মেলন করে জানায় সংগঠনগুলোর নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় আগামীতে ১৯ সংগঠনের কোন সদস্য মিশা জায়েদের সঙ্গে কোন কাজ করতে পারবেনা। করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। শিল্পী সমিতির সভাপতি ও সেক্রেটারির পদ থেকে মিশা জায়েদকে পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আলোচনায়ও বসা হবেনা বলে জানানো হয়। এর মধ্যেই আজ ১৯ সংগঠনের মঞ্চে দেখা গেলো মিশাকে। 

শনিবার এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবের সামনে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আলোচনা সভার ও মঞ্চে  উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক শাকিব খান,  নায়ক রিয়াজ, ওমর সানী, অনন্ত জলিল, সাইমন সাদিক, নায়িকা নূতন, রোজিনা, মৌসুমী, নিপুন ও অপু বিশ্বাস। প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, সেক্রেটারি শামসুল আলম ও ১৯ সংগঠনের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

১৯ সংঠনের এ আয়োজনে হুট করে হাজির শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদগারও। শোক দিবসের আয়োজনের আয়োজনে সবার সঙ্গে মঞ্চে গিয়ে বসেন তিনি। হাসিমুখে উপস্থিত সবার সঙ্গে কথা বলেন।

এ সময়ে মিশা সওদাগর বলেন, এখানে যারা হাজির তারা তো সবাই আমার ভাই। অনেকে আছে আমার ছেলের মতোও। এফডিসির সিনেমায় আমি অভিনয় করে মিশা সওগার হয়েছি। এই এফডিসিই আমারি ঘরবাড়ি। এই এফডিসি হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর তৈরি। এখানে বঙ্গবন্ধুর শোক দিবসের আয়োজনে আমি থাকবো না এটা তো ভাবাই যায়না। বঙ্গবন্ধূর এফডিসিতে আমরা সবাই একসঙ্গে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করবো। আমাদের মধ্যে যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে আশা করি সেটা শিগগিরই সমাধা হয়ে যাবে।’