সমালোচনা তার পিছু ছাড়ে না। বেশির ভাগই ব্যক্তিগত ঝুট-ঝামেলা নিয়ে। নায়ক সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে বলিউডে মাফিয়াদের দৌরত্ব্য নিয়ে প্রকাশ্যেই কথা বলেছেন তিনি। করণ জোহর থেকে রণবীর কাপুর, মহেশ ভাট, আলিয়াদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পিছপা হননি এই গুণী অভিনেত্রী।

এসব করতে গিয়ে হয়তো হুমকিও পেয়েছেন কঙ্গনা। এ বিষয়ে সোমবার এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘আমার বক্তব্যকে মুম্বাইয়ের মুভি মাফিয়ারা একমাত্রিকভাবে দেখছে। আমার সময় ফুরিয়ে আসছে! যে কোনো মুহূর্তে আমার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে। কিন্তু এর মধ্যেও যে সময় আছে মুভি মাফিয়াদের কীর্তি সরাসরি প্রকাশ্যে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাব আমি।’


এসবের জেরেই সম্প্রতি হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে কঙ্গনাকে বয়কটের ক্যাম্পেন চলছে। অন্যদিকে কঙ্গনার ভক্ত-সমর্থকরা টুইটে লিখেছেন, 'কঙ্গনা সত্যি কথা বলার সাহস রাখেন। টুইট বন্ধ করে তাঁর মুখ বন্ধ করা যাবে না। কেউ কেউ বলেছেন, 'আপনি টুইট ছেড়ে ইউটিউবে আসুন। আপনাকে কেউ আটকাতে পারবে না। আমরা আছি আপনার সঙ্গে!'

এ ছাড়া ভারতে স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করেও ট্রলের মুখে পড়েন কঙ্গনা। অবশ্য টুইটে সেই ট্রলের জবাব দিয়েছিলেন তিনি।  সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস