একেই বলে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে আসা! এবার বলিউডের মাদককাণ্ডে নাম জড়াল দীপিকা পাড়ুকোনের। সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা একটি চ্যাটে তাকে 'কে' নামে একজনের কাছে মাদক চাইতে দেখা গেছে। এরপরই অভিনেত্রীর ম্যানেজারকে সমন পাঠানো হচ্ছে বলে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো [এনসিবি] সূত্রের খবর। ফলে বিষয়টি নিয়ে তলব করা হতে পারে এই বলিউড অভিনেত্রীকেও। যদিও বিষয়টি নিয়ে দীপিকা এখনও কিছু বলেননি। তিনি এখন তার নতুন ছবির কাজে গোয়ায় রয়েছেন।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে নেমে বলিউডের অন্দরে ছড়িয়ে থাকা মাদক চক্রের জাল গোটাচ্ছে এনসিবি। তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক হর্তাকর্তার নাম। জেরা করা হচ্ছে তাদের। কখনও বা নিষিদ্ধ মাদকের নেশার অভিযোগ কিংবা সরবরাহের অভিযোগে বিদ্ধ করা হচ্ছে।

কয়েক দিন আগে এই তালিকায় নাম উঠেছে অভিনেত্রী সারা আলি খান, রাকুল প্রীত সিংদের। তালিকার সর্বশেষ সংযোজন বলিউডের প্রথম সারির গ্ল্যামার কন্যা দীপিকা পাড়ুকোনের। কীভাবে সামনে এলো তার নাম?

ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের দাবি, এনসিবির তদন্তকারীরা মাদকযোগের বিষয়ে সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে জেরা করছেন। সেই সূত্র ধরেই তার ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহার সঙ্গে রিয়ার হোয়াটস অ্যাপ চ্যাট খতিয়ে দেখছিলেন তদন্তকারীরা। সেখান থেকেই 'ডি' ও 'কে'-এর সঙ্গে জয়ার কথোপকথন সামনে আসে। এরপর তদন্ত করতেই ডি-ফর দীপিকা ও কে-ফর কারিশ্মা (দীপিকার ম্যানেজার) হয়ে যায় খবর। এরপরই কারিশ্মা প্রকাশকে তলব করে এনসিবি।