‘রুমের বাইরে থেকে মা খাবার দিয়ে যাচ্ছেন’

প্রকাশ: ০৬ অক্টোবর ২০২০     আপডেট: ০৬ অক্টোবর ২০২০   

বিনোদন প্রতিবেদক

তানজিন তিশা

তানজিন তিশা

‘জ্বর রয়েছে, রয়েছে হালকা কাশিও। খাবারের স্বাদও পাচ্ছিনা। এই সমস্যাগুলো  ছাড়া কোনো সমস্যা হচ্ছে না। ভালোই আছি।’  করোনা আক্রান্ত অভিনেত্রী তানজিন তিশার খোঁজ জানতে যোগাযোগ করা হলে নিজের বর্তমান শারীরিক অবস্থা এভাবেই জানালেন। 

গত রোববার তিশা জানতে পারেন তার কোভিড-১৯ পজেটিভ। এরপর থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শে এখন নিজ বাসায় আইসোলেশনে রয়েছে তিনি। 

করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার দুদিন আগে থেকেই তানজিন তিশার জ্বর। কোন খাবারের স্বাদ ও ঘ্রাণ পাচ্ছিলেন না। তাই নিজেরই করোনা পজেটিভি সন্দেহ হয়। লক্ষণে করোনা সন্দেহ হওয়ায় পরিবার ও সহকর্মীদের কথা সবার আগে মাথায় আসে তার। তাই নিজ উদ্যোগে হাসপাতালে গিয়ে কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন তিশা। একদিন পরই জানতে পারেন করোনা পজেটিভ তার। 

রেজাল্ট জানার পরই আগাম সব কাজ বাতিল করেছেন। পরিবার ও সহকর্মীদের নিরাপত্তার কথা ভেবেই নিজ উদ্যোগে পরীক্ষা করানো ও শুটিং বাতিল করেছেন বলে জানান তিশা। 

তানজিন তিশা বলেন, ‘একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেওয়া আমার দায়িত্ব। সেটা ভেবে যখনই জ্বরাক্রান্ত হই এবং কোনো খাবারের স্বাদ পাচ্ছিলাম না, মনে মনে ভাবলাম, এটা হয়তো করোনারই লক্ষণ।’ তিশা বলেন, ‘আমি যেহেতু নিয়মিত কাজ করছি এবং সামনে অনেকগুলোর কাজের ব্যাপারে কথাবার্তাও চূড়ান্ত হয়ে আছে, তাই হয়তো অনেকের সংস্পর্শে যেতে হবে। শুটিং করলে আমার সংস্পর্শেও অনেকে আসবেন। তাই ভাবলাম, কাজ শুরু করার আগে আমার নিজের, পরিবারের এবং সহকর্মীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে কোভিড-১৯ টেস্ট করা দরকার। উপসর্গ নিয়ে নিজে থেকেই দ্রুত ছুটে যাই হাসপাতালে, পরীক্ষা করাই। এরপর জানতে পারি, আমি করোনা আক্রান্ত। বাসার সবাইকে জানিয়ে আমি হাসপাতাল থেকে ফিরে আইসোলেশনে চলে যাই। বাসার মধ্যে আমি আমার রুমে একা আছি। বাইরে থেকে মা খাবার দিয়ে যাচ্ছেন।’