ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

হ্যালো বিশ্ব, আমার বয়স হল চল্লিশ.....

হ্যালো বিশ্ব, আমার বয়স হল চল্লিশ.....

আজমেরি হক বাঁধন

বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৭:৩৩ | আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৭:৫৬

‘হ্যালো বিশ্ব, আমার বয়স হল চল্লিশ’- নিজের বয়স জানিয়ে এমন অকপটে হতে সাহস লাগে, লাগে সার্বিক পরিস্থিতি জয় করার শক্তি। সেটা আজমেরি হক বাঁধনের রয়েছে। আর রয়েছে বলেই নিজের জন্মদিনের প্রথম প্রহরেই বিশ্বকে জানিয়ে দিলেন বয়স তার চল্লিশের ঘরে পা দিয়েছে! সে এখন পরিণত মানুষ, অভিনেত্রী ও মা। বাঁধন বললেন, ‘আমি আমার জীবনের চতুর্থ দশকে প্রবেশ করছি! আমি খুব খুশি এবং আনন্দিত।’

জীবনের যাত্রা চল্লিশের ঘরে মানেই বিস্ময়কর জীবনে যাত্রা মনে করছেন অভিনেত্রী। মনে করছেন আনন্দের ও স্বাধীনভাবে নিজের মত করে বাঁচারও। তবে পেরিয়ে আসা দশকগুলোকে বাঁধন বিভ্রান্তিকর দশক বলেই অভিহিত করেন।

তার ভাষ্য, আমি খুশি যে, আশা, আনন্দ এবং শান্তি নিয়ে আমার জীবনের সবচেয়ে বিস্ময়কর দশকে প্রবেশ করতে পেরেছি। তবে গত দশকগুলি এত বিভ্রান্তিকর ছিল, এবং  অন্যদের খুশি করার চেষ্টা করেই বেশিরভাগ সময় নষ্ট করেছি।’

বয়স চল্লিশে পাঁ দেওয়ার সময়টা সত্যিই বাঁধনের জন্য স্পেশাল। ‘রেহানা মরিয়ম নূর’এর পর তিনি যখন  বলিউডের খ্যাতিমান নির্মাতা বিশাল ভরদ্বাজ নির্মাণে ‘খুফিয়া’ দিয়ে বিশ্বসেরা প্লাটফর্মে যাত্রা করে প্রশংসিত হচ্ছেন তখনই তার বয়সের যাত্রা চল্লিশের ঘরে! তাই চল্লিশকে আনন্দময় যাত্রার দশক বলেই অভিহিত করলেন অভিনেত্রী।

বাঁধনের মতে, অতীত জীবনের পরতে পরতে আসা আঘাত, অন্যায় ও যন্ত্রণা তাকে আজকের বাঁধন করেছে। সেই সঙ্গে করেছে সাহসী, দিয়েছে চলার অফুরন্ত প্রাণশক্তি। তাই জীবনের এই পর্যায়ে এসে কোনো আফসোস রাখতে চাননা কিছুতে, নেইও।  

বাঁধন বললেন, ‘আমি নিজেকে বিশ্বাস করি, সম্মান করি। আমিই জীবনের প্রতিটি অশান্তির মধ্য দিয়ে নিজেকে এখানে এনেছি।। আমি বিশ্বাস করি জীবনে শেখাটা হল নিজেকে গড়ে তোলার সর্বোত্তম উপায়। আমি অনেক অন্যায় এবং আঘাতের সম্মুখীন হয়েছি, সেই যন্ত্রণা আমাকে আজকের বাঁধন করেছে।’

অভিনেত্রী বললেন, আমার জীবনে কিছু ভাল মানুষ আছে যাদের সাথে আমি আমার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছি এবং কীভাবে তা কাটিয়ে উঠতে পারি তা জানতে চেয়েছিলাম।  অন্য যারা আমাকে উপদেশ এবং অভিশাপ দিয়ে  তাদের মূল্যবান সময় নষ্ট করছেন। বিশ্বাস করুন, এটি কখনই কাজ করেনি। আপনি আপনার জীবন নিয়ে কী করবেন তা আপনার পছন্দ।’

নিজের মত বাঁচার লড়াই করে যাওয়া বাঁধন  নিজের সময়কেও নানাভাবে ভাগ করে নিয়েছেন। বই পড়ে,সিনেমা দেখে সময় কাটছে তাঁর। নতুন নতুন বিষয় শিখছেন। শিখেছেন সাতাঁর,ড্রাইভিং। নতুন কিছু শিখলে তাঁর মন ভালো থাকে, এমনটিই জানান এই অভিনেত্রী। 

আরও পড়ুন

×